National

ছোট গর্ত দেখে হাসপাতালের দেওয়াল ভাঙতেই বেরিয়ে এল অজানা সুড়ঙ্গ

হাসপাতালের একটি দেওয়ালে ছোট একটা গর্ত দেখে সন্দেহ হয় এক চিকিৎসকের। গর্তের পিছনে কি রয়েছে তা জানতে ভেঙে ফেলা হয় দেওয়াল।

শতাধিক বছর পুরনো সরকারি হাসপাতালের এক চিকিৎসক হাসপাতালের একটি ধার দিয়ে যাচ্ছিলেন। এমন সময় তাঁর নজরে পড়ে একটি গর্ত দেখা যাচ্ছে দেওয়ালে। দেওয়ালে গর্ত কেন? কিছুটা সন্দেহ হয় তাঁর।

হতে পারে বহু পুরনো হাসপাতাল। হয়তো ওই জায়গাটা নষ্ট হয়ে ভেঙেছে। কিন্তু সন্দেহ যায়না। তাই ওই গর্ত সারাই সহ তার পিছনে কি রয়েছে তা দেখার জন্য দেওয়ালের গর্তটি আরও একটু ভেঙে ফেলা হয়। তারপর গর্তের মধ্যে নজর দিতেই চক্ষু চড়কগাছ! এতো একটা মস্ত সুড়ঙ্গ দেখতে পাওয়া যাচ্ছে!

দ্রুত পুরো দেওয়াল ভেঙে ফেলা হয়। দেওয়াল ভাঙতেই বেরিয়ে পড়ে ইট দিয়ে গাঁথা একটি বিশাল সুড়ঙ্গ। ছোটখাটো নয়, ২০০ মিটার লম্বা সে সুড়ঙ্গ। যা ১৮৯০ সালে তৈরি হয়েছিল। কারণ সুড়ঙ্গের ফলকে সেটাও দেখা গেছে।

ফলকে সুড়ঙ্গটি নির্মাণের তারিখ ও বছর উল্লেখ রয়েছে। ব্রিটিশ আমলের এই ১৩২ বছর পুরনো সুড়ঙ্গের কথা কিন্তু হাসপাতালের যে নকশা রয়েছে তাতে নেই। ফলে পুরসভার কাছেও এই নকশার কোনও প্রামাণ্য নথি নেই। এমন সুড়ঙ্গ যে আছে তারই কোনও হদিশ নেই।


মনে করা হচ্ছে হাসপাতালটি যেহেতু ১৮৪৫ সালে তৈরি করা হয়েছিল এবং সুড়ঙ্গটি তার অনেক পরে তৈরি করা হয়, তাই সুড়ঙ্গের উল্লেখ ব্রিটিশদের তৈরি হাসপাতালের নকশায় নেই। মুম্বইয়ের স্যার জেজে হাসপাতাল শহরের অন্যতম পুরনো হাসপাতালে হিসাবে বিখ্যাত। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button