National

সীতাকে হরণ করার সময় মৃত্যু হল রাবণের, লঙ্কাদহনে গিয়ে মৃত হনুমান

সীতাকে হরণ করে নিয়ে যায় রাবণ। রামায়ণের সে কাহিনি মুখে মুখে শত শত বছর ধরে শোনা। এবার সেই সীতা হরণের সময়ই রাবণের মৃত্যু হল।

রাম ও লক্ষ্মণ তখন কুটিরে নেই। তাঁরা গেছেন সোনার হরিণ ধরতে। সেই সময় লঙ্কারাজ রাবণ এসে উপস্থিত হলেন একা থাকা সীতার কুটিরের সামনে। এক ব্রাহ্মণের বেশে চাইলেন ভিক্ষা। সীতাকে লক্ষ্মণের কাটা গণ্ডির বাইরে আসতে বাধ্যও করলেন। তারপর যেই সীতা গণ্ডির বাইরে পা রেখেছেন তখনই রাবণ তাঁর স্বমূর্তি ধারণ করে সীতাকে হরণ নিয়ে চললেন লঙ্কায়।

রামায়ণের এই টানটান মুহুর্ত প্রায় সকলের জানা। কিন্তু এমনই এক সীতা হরণের সময় সীতাকে নিয়ে যাওয়া হল না রাবণের। সীতা হরণের সময় আচমকাই লুটিয়ে পড়ে মৃত্যু হল তাঁর।

দশেরার সময় অযোধ্যায় এমনই এক রামলীলা চলাকালীন সীতা হরণের দৃশ্য স্টেজে ফুটিয়ে তুলছিলেন অভিনেতারা। দর্শকরাও ভিড় করে তা দেখছিলেন।

সীতা হরণের সময় রাবণের চরিত্রে অভিনয় করা ৬০ বছরের প্রীতম হৃদরোগে আক্রান্ত হন। স্টেজেই বুকে হাত দিয়ে লুটিয়ে পড়তে রামলীলা বন্ধ করে সকলে তাঁকে নিয়ে ছোটেন চিকিৎসকের কাছে। যদিও চিকিৎসক জানান তাঁর কাছে আনার আগেই প্রীতমের মৃত্যু হয়েছে।

ঠিক ১ দিনের ব্যবধানে এমন আরও এক ঘটনা ঘটে গেছে ফতেহপুর জেলার সালেমপুর গ্রামে। সেখানে রামলীলায় চলছিল লঙ্কাদহন পর্ব। যেখানে হনুমান তাঁর লেজে আগুন ধরিয়ে গোটা লঙ্কা দাপিয়ে বেড়াবেন। আর তাঁর পুচ্ছের আগুন থেকে লঙ্কার বিভিন্ন জায়গায় আগুন লেগে যাবে।

এই দৃশ্যে অভিনয় করছিলেন রাম স্বরূপ নামে বছর ৫০-এর এক ব্যক্তি। আচমকাই স্টেজে তিনিও হৃদরোগে আক্রান্ত হন। মৃত্যু হয় তাঁর। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button