National

রান্না করে টয়লেটে রাখা ভাত খাওয়ানো হল জাতীয় স্তরের খেলোয়াড়দের

তারা সকলেই জাতীয় স্তরের খেলোয়াড়। তাদের জন্য যে ভাত রান্না করা হয়েছিল তা রাখা ছিল একটি পুরুষদের টয়লেটে। সেই ভাতই পরিবেশন করা হল তাদের।

যা ভাবলেও অনেকের গা ঘিন ঘিন করে উঠতে পারে। সেটাই খেতে হল জাতীয় স্তরের খেলোয়াড়দের। পুরুষদের টয়লেটে একটি বড় থালায় করে ভাত মজুত করে রাখা হয়েছিল। সেই ভাতই খাওয়ার সময় খেলোয়াড়দের পরিবেশন করে খাওয়ানোও হল।

টয়লেটে যেখানে অনেক পুরুষ প্রস্রাব করতে যাচ্ছেন, সেখানে ভাত রেখে তা কীভাবে খাওয়ানো যেতে পারে তা নিয়ে হইচই শুরু হয়েছে। কর্তৃপক্ষের নজরে বিষয়টি আনে বেশ কয়েকজন খেলোয়াড়। যদিও বিষয়টি সেভাবে মানতে রাজি নয় কর্তৃপক্ষ। আবার এমন কাজ করার জন্য রাঁধুনিকে ডেকে ভর্ৎসনাও করা হয়েছে।

উত্তরপ্রদেশের সাহারানপুরে একটি স্টেডিয়ামে বসেছে জাতীয় স্তরের বয়সভিত্তিক মহিলা কাবাডির আসর। অনূর্ধ্ব ১৭ মেয়েদের জাতীয় স্তরের কাবাডি প্রতিযোগিতার এই আসরে খেলোয়াড়দের জন্য খাবার তৈরির ব্যবস্থা করেছেন কর্মকর্তারা।

তাঁদের দাবি, স্থানাভাবে রান্নার বন্দোবস্ত হয়েছে স্টেডিয়ামের সুইমিং পুলের পাশে। সেখানে রান্না করার পর ভাত যে পুরুষদের টয়লেটে রাখা হয়েছে তা মানতে এখনও নিমরাজি তাঁরা। যদিও কয়েকজন খেলোয়াড় তাঁদের বিষয়টি সম্বন্ধে জানায়। দেখিয়েও দেয়। সেই ছবিও তুলে রাখে অনেকে।


খেলোয়াড়েরা জানাচ্ছে ভাত রান্না করে টয়লেটে তো রাখা হয়েছিলই, সেইসঙ্গে যে পুরিগুলি বেঁচে গিয়েছিল সেগুলিও একটি কাগজের ওপর রেখে তা রাখা হয়েছিল টয়লেটের মেঝেতে।

ভারতের অনূর্ধ্ব ১৭ কাবাডির মহিলাদের সেরারা এখানে হাজির হয়েছে। সেখানে তাদের খাবার টয়লেটে মজুত করা কিন্তু ক্রীড়াক্ষেত্রের দৈন্যদশাই ফের একবার তুলে ধরল। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button