National

দাভিঞ্চির ছোঁয়ায় ৮ ঘণ্টায় জলের তলায় সৃষ্টি হল অনন্য কীর্তি

জলের তলায় নেমেও যে অভিনব উপায়ে কার্গিল নায়ককে সেলাম জানানো সম্ভব তা দেখিয়ে দিলেন এক শিল্পী। তাঁর নতুন ভাবনা লিখল নতুন ইতিহাস।

কার্গিল বিজয় দিবস উপলক্ষে নানা অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়েছে। সেখানেই কার্গিল যুদ্ধের নায়ক শহিদ ক্যাপ্টেন বিক্রম বাত্রাকে এমন এক উপায়ে সেলাম জানানো হল যা নিজের দিক থেকে অভিনব।

এমন উপায়ে কাউকে স্মরণ করার কথা এর আগে কেউ ভেবে দেখেননি। তিরুবনন্তপুরমের পানগোড মিলিটারি স্টেশনের ১৫০০ বর্গ ফুটের বিশাল জলের তলায় ফুটে উঠল একটি মুখ। যা সম্পূর্ণ আকার নিল ৮ ঘণ্টার চেষ্টার পর।

শিল্পী দাভিঞ্চি সুরেশ জলের তলায় অতিকায় একটি অবয়ব ফুটিয়ে তোলেন বিভিন্ন রং ও আকারের টুকরো দিয়ে। এভাবে জলের তলায় নেমে একটি শিল্পকে পূর্ণ রূপ দেওয়া মুখের কথা ছিলনা। এজন্য দস্তুরমত স্কুবা ডাইভ করতে হয় শিল্পীকে।

তাঁকে সাহায্য করেন একজন। তাঁরা সুইমিং পুলের জলের তলায় নেমে এই অবয়ব ফুটিয়ে তোলার কাজ করেন। যা পূর্ণ হওয়ার পর জলের ওপর থেকে দেখে অভিভূত হয়ে যান অনেকে। বিক্রম বাত্রার মুখ ঝলমল করছিল জলের তলায়।


ভারতে এভাবে একটি শিল্পকীর্তি ফুটিয়ে তোলার কাজ এই প্রথম। জলের তলায় এভাবে স্কুবা ডাইভ দিয়ে একজন শিল্পী টানা ৮ ঘণ্টার লড়াই দিলেন। আর সেই লড়াইয়ের ফল কার্গিল দিবসে কার্গিল যুদ্ধের নায়ক ক্যাপ্টেন বিক্রম বাত্রাকে একদম নতুন উপায়ে সম্মান জানানো। এই শিল্পকীর্তি বিশ্বরেকর্ডও স্থাপন করেছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button