National

বিয়ের দিন বিয়ে করতে এলেন না বিধায়ক, থানায় গেলেন কনে

বিয়ের দিন সব ঠিকঠাক। কিন্তু সেদিন বিয়ে করতেই এলেন না বিধায়ক পাত্র। দীর্ঘ অপেক্ষার পর ক্ষোভে থানায় গিয়ে অভিযোগ দায়ের করলেন কনে।

গত ৩ বছর ধরেই ওই বিধায়কের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক তরুণীর। বিষয়টি তাঁর পরিবারও জানে। সম্প্রতি তাঁদের বিয়েও স্থির হয়। বিয়ের দিনও পাকা করা হয়।

স্থির হয় প্রথমে রেজিস্ট্রি বিয়েটা সেরে নেওয়া হবে। তারপর সামাজিক বিয়ে হবে অনুষ্ঠান করে। কনের দাবি, বছর ৩০-এর ওই বিধায়কের সঙ্গে কথাবার্তা বলেই রেজিস্ট্রি বিয়ের দিন স্থির হয়।

সেইমত কনে ও তাঁর পরিবার রেজিস্ট্রি অফিসে পৌঁছে যান গত শুক্রবার। তখনও বিধায়ক পাত্র হাজির হননি। ফলে তাঁরা সেখানে অপেক্ষা করতে থাকেন।

ফোন করা হলেও বিধায়ক ফোন ধরেননি। একটা সময় পর্যন্ত অপেক্ষার পর কনে সহ কনেপক্ষ বুঝতে পারে যে বিধায়ক বিজয় শঙ্কর দাস এদিন আর বিয়ে করতে আসবেন না।

কনে বুঝতে পারেন প্রতিশ্রুতি দিলেও বিয়ে নিয়ে টালবাহানা করছেন তাঁর বিধায়ক প্রেমিক। ক্ষোভে কনে সোজা হাজির হন থানায়। সেখানে তাঁকে ঠকানোর অভিযোগ দায়ের করেন তিনি।

অভিযোগ করা হয় বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়েও এখন বিয়ে করতে চাইছেন না বিজয় শঙ্কর। ওই তরুণীর অভিযোগক্রমে ওড়িশার বিজেডি বিধায়ক বিজয় শঙ্কর দাসের বিরুদ্ধে একাধিক ধারায় অভিযোগ দায়ের করে পুলিশ।

বিজয় শঙ্কর অবশ্য দাবি করেছেন তিনি ওই তরুণীকে বিয়ে করবেননা একথা বলেননি। তাঁকে সঠিকভাবে দিনটি জানানো না হওয়ায় তিনি ওইদিন আসতে পারেননি। এখনও হাতে অনেকদিন রয়েছে রেজিস্ট্রি সম্পূর্ণ করার জন্য। ঘটনাটি ঘটেছে ওড়িশার জগতসিংহপুরে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.