National

নিজের গ্রামে কীর্তি গড়ে খবরের শিরোনামে ডাকাতের স্ত্রী

তিনি কুখ্যাত ডাকাতের স্ত্রী। যে ডাকাতের নাম শুনলে এক সময় বাঘে গরুতে এক ঘাটে জল খেত। সেই ডাকাতের স্ত্রী গড়ে ফেললেন এক অনন্য ইতিহাস।

একসময় তাঁর নাম শুনলে থরথর করে কাঁপতেন মানুষজন। ভারতে তিনি বিখ্যাত ব্যান্ডিট কিং নামে। গোঁফের জন্যও বিখ্যাত ছিলেন এই ডাকাত সর্দার।

ভারতে ডাকাত অনেক জায়গায় ছিল। কিন্তু কুখ্যাত ডাকাতদের ডেরা বলে সবচেয়ে বেশি পরিচিত চম্বল। সেই চম্বলের এক সময়ের দাপুটে ডাকাত ছিলেন মাখন সিং।

১৯৮২ সালে নিজের সাঙ্গপাঙ্গদের নিয়ে মাখন সিং তৎকালীন মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী অর্জুন সিংয়ের কাছে আত্মসমর্পণ করেন। তখন তাঁর বিরুদ্ধে পুলিশের খাতায় ৯৪টি মামলা ছিল।

যার মধ্যে ছিল ১৭টি খুন, ১৮টি ডাকাতি এবং ২৮টি অপহরণের মামলা। সেই কুখ্যাত মাখন সিং আদপে ভিন্দের বাসিন্দা হলেও এখন তাঁর দ্বিতীয় স্ত্রীকে নিয়ে থাকেন মধ্যপ্রদেশের গুনা জেলার সাঙ্গাইয়াই গ্রামে।

মধ্যপ্রদেশে আগামী ২৫ জুন পঞ্চায়েত নির্বাচন। কিন্তু তার আগেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সাঙ্গাইয়াই গ্রামের সরপঞ্চ অর্থাৎ গ্রাম প্রধান নির্বাচিত হয়েছেন মাখন সিংয়ের দ্বিতীয় স্ত্রী ললিতা রাজপুত। এখন এটা প্রাক্তন ডাকাত সর্দারের স্ত্রী বলে কিনা তা পরিস্কার নয়।

এদিকে ভোটের আগেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয় পেয়ে ললিতা রাজপুত খুশি। তিনি জানিয়েছেন গ্রামে আলো নিয়ে আসা, রাস্তা ঠিক করা এবং নিকাশি ব্যবস্থা উন্নত করা তাঁর প্রধান লক্ষ্য হবে।

গ্রামের উন্নয়নে কাজ করে যেতে চান তিনি। তাঁর এই জয়ের খবর দেশের সংবাদমাধ্যমে জায়গা করে নিয়েছে। যার একটা বড় কারণ অবশ্যই তাঁর স্বামীর নাম।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button