National

জঞ্জাল জমিয়ে সবুজ ইট বানালেই মিলবে পকেট খরচ, দারুণ অফার দিল এক পুরসভা

শহরের প্লাস্টিক জঞ্জাল যোগাড় করতে হবে। তারপর তা এক জায়গায় জড়ো করতে হবে। এবার তা সেন্টারে এসে বেচে দিতে হবে। তাহলেই মিলবে নগদ টাকা।

পকেট খরচ তোলা নিয়ে চিন্তার দরকার অন্তত দেশের একটি পুরসভায় মানুষজনের নেই। যে কেউ চাইলেই এই রোজগার করে নিতে পারবেন। এরজন্য বিরাট কিছু করতে হবেনা। শুধু জমাতে হবে শহরের যাবতীয় প্লাস্টিকের জঞ্জাল।

যে যত বেশি জোগাড় করতে পারবে, তার পকেট খরচের অঙ্ক তত বেশি হবে। এই প্লাস্টিক কিন্তু নিছক শহর পরিস্কারের জন্যই নেওয়া হবেনা। তা দিয়ে তৈরি হবে পাঁচিল, বসার বেঞ্চ। কারণ এই প্লাস্টিক আবর্জনা দিয়ে তৈরি করা হবে সবুজ ইট।

সবুজ ইটটা আবার কি? তামিলনাড়ুর কোয়েম্বাটোর পুরসভা একটি এনজিও-র সঙ্গে হাত মিলিয়ে এই সবুজ ইট তৈরির প্রকল্প শুরু করেছে। যা পুরোটাই নির্ভর করে আছে শহরের প্লাস্টিক জঞ্জালের ওপর।

প্লাস্টিকের ১ বা ২ লিটারের ফেলে দেওয়া বোতলে ভরা হবে শহরের আনাচ কানাচ থেকে উদ্ধার করা প্লাস্টিকের প্যাকেটের স্তূপ। প্লাস্টিকের প্যাকেটগুলিকে এমনভাবে ওই বোতলে চেপে ঢোকানো হবে যাতে তা পাথরের মত শক্ত হয়ে যায়।


এক একটা বোতলের ওজন প্লাস্টিকের প্যাকেট পোরার পর দাঁড়াতে হবে ৪ থেকে ৫ কেজির মতন। এগুলিই সবুজ ইট। এগুলি পাথরের মত হয়ে গেলে তা দিয়ে তৈরি হবে শহরের নানা পাঁচিল, বেঞ্চ।

প্রতি ৪ থেকে ৫ কেজির এমন বোতল পিছু রোজগার হবে ৫ টাকা। এক ছাত্র তো ইতিমধ্যেই গত শনিবার এমন ২০টি বোতল জমা করেছে। পেয়েছে ১০০ টাকা।

এগুলি জমা দেওয়ার জন্য সংগ্রহ সেন্টারও খোলা হয়েছে শহরের বিভিন্ন প্রান্তে। ২০২৩ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলবে এই প্রকল্প। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button