National

গোঁফ কাটতে না চাওয়ায় সাসপেন্ড পুলিশকর্মী

গোঁফ কাটতে না চাওয়ায় চাকরি থেকে সাসপেন্ড হলেন এক পুলিশকর্মী। অনেক বুঝিয়েও তাঁকে গোঁফ কাটানো যায়নি। সাসপেন্ড হলেও তিনি জানিয়ে দিয়েছেন গোঁফ তিনি কাটবেন না।

গোঁফের আমি গোঁফের তুমি তাই দিয়ে যায় চেনা। সেই গোঁফই তাঁর পরিচিতি। তাঁর গর্ব। গোঁফে লুকিয়ে রয়েছে তাঁর আত্মসম্মান। তিনি রাজপুত। আর রাজপুতদের গর্ব হল তাঁদের গোঁফ।

তাই সেই গোঁফ কেটে ফেলার বা ছেঁটে ফেলার কোনও প্রশ্নই উঠছে না। তিনি সাসপেন্ড হতেও রাজি, কিন্তু গোঁফ তিনি কাটবেন না। একথা সাফ জানিয়ে দিলেন পেশায় পুলিশ কনস্টেবল রাকেশ রাণা।

রাকেশ রাণা মধ্যপ্রদেশের একটি থানায় কর্মরত। পুলিশকর্মীদের আউটলুকের ওপর নজর দিতে উর্ধ্বতন পুলিশ আধিকারিকরা তাঁদের পরীক্ষা করেন। সেখানে রাণাকে তাঁর গোঁফ কাটতে বলা হয়। রাণাকে পরীক্ষা করা সময় দেখা যায় তাঁর ঘাড় পর্যন্ত ওই গোঁফ চলে গেছে।

এটা দেখার পর রাণাকে তাঁর গোঁফ কাটতে বা ছেঁটে ফেলতে নির্দেশ দেওয়া হয়। কিন্তু তিনি সাফ জানিয়ে দেন এটা তাঁর পক্ষে সম্ভব নয়। কারণ এটা তাঁর আত্মসম্মানের সঙ্গে জড়িয়ে আছে।

কিন্তু পুলিশের উর্ধ্বতন আধিকারিকের নির্দেশ না মানায় রাণার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করে মধ্যপ্রদেশ পুলিশ। তাঁকে সাসপেন্ড করা হয়।

এভাবে সাসপেন্ড হয়েও কিন্তু রাণা নিজের সিদ্ধান্তে অবিচল থাকেন। তাঁর মতে, তিনি সব সময় তাঁর পুলিশের পোশাক সঠিকভাবে পরেন। সব নিয়ম মেনে চলেন। কিন্তু তাঁর গোঁফ রাখার অধিকার রয়েছে। সেক্ষেত্রে তিনি কোনও সমঝোতায় রাজি নন। তাই তিনি গোঁফ কাটবেন না। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.