National

সদ্যোজাতকে বিক্রির টাকা বাড়ি ফেরার আগেই ছিনতাই

সদ্যোজাতকে বিক্রি করে দিয়েছিল মা। বিক্রির টাকা নিয়ে বাড়ি ফিরছিল সে। তখনই হল আর এক কাণ্ড। সন্তান ও টাকা ২ হারিয়ে পুলিশের কাছে মহিলা।

পরিচয়টা হয়েছিল কিছুদিন আগে। ইয়াসমিন নামে ওই মহিলা তখন সন্তানসম্ভবা। কিন্তু তিনি স্থির করেন তিনি সন্তান নষ্ট করে দেবেন। সেকথাই তিনি জানিয়েছিলেন সবে আলাপ হওয়া জয়গীতা নামে এক মহিলাকে।

২৮ বছরের ইয়াসমিনের স্বামী তাঁকে ছেড়ে চলে গেছেন। একটি মেয়ে রয়েছে। এই অবস্থায় তাঁর যে সংসারে অভাব রয়েছে তা বুঝে জয়গীতা তাঁকে বলেন তাঁর সন্তান জন্মালে সেই সন্তানের বিনিময়ে ইয়াসমিনকে বড় টাকা পাইয়ে দেবে সে।

গত ২১ নভেম্বর একটি সরকারি হাসপাতালে সন্তানের জন্ম দেন চেন্নাইয়ের সুনামি কলোনির বাসিন্দা ইয়াসমিন। এর এক সপ্তাহ পরে জয়গীতা তাঁকে সন্তানকে সঙ্গে করে একটি জায়গায় আসতে বলে।

পুরাসাওয়ালকম হাই রোডের নির্দিষ্ট জায়গায় গেলে ইয়াসমিন দেখেন সেখানে জয়গীতা ছাড়াও ধনম নামে এক মহিলা রয়েছেন। সঙ্গে রয়েছে ২ পুরুষ।

একটি সাদা কাগজে সম্মতিপত্র বলে ইয়াসমিনকে দিয়ে সই করিয়ে নেয় ওই ২ পুরুষ। ইয়াসমিন সদ্যোজাতকে তুলে দেন ধনমের হাতে। আর তাঁকে এর বদলে দেওয়া হয় আড়াই লক্ষ টাকা।

সেই টাকা নিয়ে ইয়াসমিন একটি অটোয় চড়ে বসেন। সঙ্গে ছিল তাঁর মেয়ে শর্মিলা। অটোটিকে মাঝপথে এক জায়গায় আটকায় ২ বাইক আরোহী। সেই ২ জন যারা ধনমের সঙ্গে এসেছিল।

ভয় দেখিয়ে এরপর ইয়াসমিনের কাছ থেকে আড়াই লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয় তারা। তারপর সেখান থেকে চম্পট দেয়। ইয়াসমিন দিশেহারা হয়ে হাজির হন পুলিশ স্টেশনে। পুলিশ অভিযোগ পেয়ে জয়গীতা, ধনম ও ওই ২ পুরুষকে খুঁজছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.