National

খানাখন্দ ভরা রাস্তায় ক্যাটওয়াক করলেন এলাকার মহিলারা

খানাখন্দে ভরা রাস্তা। রাস্তা বলে কার্যত প্রায় কিছু নেই। তা আবার বৃষ্টির জলে ভরা। সেখানেই এবার ক্যাটওয়াক করলেন স্থানীয় মহিলারা।

কোনও কিছু সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নজরে আনতে বোধহয় আর চিঠিচাপাটি যথেষ্ট নয়। প্রতিবাদ বা আবেদনের ভাষা হয়তো বদলানোর দরকার আছে। তবেই হয়তো নজরে আসবে বিষয়টি। হয়তো বা সুরাহাও হবে।

দীর্ঘদিন ধরে দুর্বিষহ দৈনন্দিন জীবন কাটাতে কাটাতে হাঁপিয়ে ওঠা কয়েকজন মহিলা এবার সেই নজরে পড়ার রাস্তাটা গ্রহণ করলেন।

ভোপালের হোসাঙ্গাবাদ রোড নামেই রোড। বাস্তবে একটি খানাখন্দে ভরা দুর্বিষহ পথ। যেখান দিয়ে যাতায়াত এক বিভীষিকার চেয়ে কম কিছু নয়। কারণ রাস্তা কম, বড় বড় গর্ত বেশি রাস্তায়।

পিচ তো কবেই উঠে গেছে। বর্ষায় গর্তগুলি আবার জলে ভরে থাকে। গাড়ি যেতে গেলে তা নৌকার খোলের মত দুলতে থাকে। এই বুঝি উল্টে যায়!

এমন এক রাস্তা সারাইয়ের জন্য বারবার কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন জানিয়ে এসেছেন স্থানীয়রা। কিন্তু ওই আবেদনই সার। কাজের কাজ কিছুই হয়নি।

এবার তাই হেলদোল না থাকা স্থানীয় প্রশাসনের নজরে বিষয়টি আনতে স্থানীয় মহিলারা নিলেন এক অভিনব উপায়। সঙ্গে নিলেন শিশুদেরও।

ওই খানাখন্দ জলে ভরা রাস্তার ওপরই তাঁরা ক্যাটওয়াক করলেন। সুন্দর পোশাক পরে ক্যাটওয়াক করে হেঁটে গেলেন ওই অগম্য পথ ধরে। যার ওপর দিয়ে হাঁটতে গিয়ে পদে পদে তাঁরা টাল হারালেনও।

এলাকাটিতে বর্ধিষ্ণু মানুষজনের বাস। সেসব পরিবারের মহিলারা হাতে প্ল্যাকার্ড নিয়ে সন্তানদের সঙ্গে করে ওই রাস্তার ওপর হাঁটলেন। জানালেন তাঁদের প্রতিবাদ ও ক্ষোভের কথা।

তাঁদের এই উদ্যোগে কিন্তু কাজ হয়েছে। সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ হওয়ায় বিষয়টি নিয়ে চারিদিকে ছিছিক্কার পড়ে গেছে। চরম কোণঠাসা অবস্থা প্রশাসনের। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button