National

টিকা না নিলে মদও নয়, কাজ করছে অভিনব ফতোয়া

টিকা না নিলে মদ নয়। এমনই এক ফতোয়া জারি করে দারুণ সুফল মিলেছে। এই নয়া ভাবনা দেশের অন্যত্রও কাজে লাগানোর চিন্তা করছেন অনেকে।

মদের দোকানের বাইরে সাঁটা রয়েছে কাগজ। সেখানে লেখা রয়েছে ভ্যাক্সিন বা টিকা নিয়ে থাকলে তবেই মিলবে মদ। দোকানে মদ কিনতে গেলে গ্রাহককে দেখাতে হবে যে তিনি টিকা গ্রহণ করেছেন।

দোকানি মদ চাইলে প্রথমে গ্রাহকের কাছে জানতে চাইবেন তিনি টিকা নিয়েছেন কিনা। যদি হ্যাঁ বলেন তাহলে তাঁকে দেখাতে হবে টিকা গ্রহণের সার্টিফিকেট। মুখের কথায় কিছুই হবে না।

দোকানি যদি দেখেন যে ওই ব্যক্তি টিকা নিয়েছেন এবং তাঁর কাছে টিকা গ্রহণের সার্টিফিকেট রয়েছে তাহলে তিনি সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে মদ বিক্রি করতে পারেন। আর যদি কেউ তা দেখাতে না পারেন বা জানান যে তিনি এখনও টিকা গ্রহণ করেননি, তাহলে তাঁকে মদ বিক্রি করা যাবে না।

এই ফতোয়ায় কাজ হচ্ছে বলেই জানতে পারা যাচ্ছে। এমন এক অভিনব ভাবনা যিনি মাথা থেকে বার করেছেন তিনি উত্তরপ্রদেশের ইটাওয়ার অতিরিক্ত জেলাশাসক হেম কুমার সিং।

গত সপ্তাহে আলিগড়ে ৫০ জন বিষাক্ত মদ পান করে মারা যান। সেই ঘটনার পর নিজের প্রশাসনিক এলাকায় বিভিন্ন মদের দোকানে হাজির হন হেম কুমার। তারপরই তাঁর মাথায় এই অভিনব আইডিয়া আসে।

এলাকার সব মদের দোকানের মালিকদের তিনি জানিয়ে দিয়েছেন তাঁরা যেন গ্রাহকের টিকাকরণ হয়েছে কিনা তা না দেখে মদ বিক্রি না করেন।

যদিও ইটাওয়ার আবগারি আধিকারিক জানিয়েছেন এমন কোনও সরকারি নির্দেশ জারি হয়নি। তবে তিনি এই ভাবনার প্রশংসাও করেছেন।

ইটাওয়ার আবগারি আধিকারিক কমল কুমার শুক্লা জানিয়েছেন যদিও এমন কোনও সরকারি নির্দেশ নেই, কিন্তু এই ভাবনাকে উৎসাহ দেওয়া উচিত।

প্রসঙ্গত উত্তরপ্রদেশ সরকার জুন মাসে করোনা টিকাকরণে গতি আনতে চাইছে। জুন মাসের মধ্যে রাজ্যের ১ কোটি মানুষকে টিকা দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা স্থির করেছে যোগী আদিত্যনাথ সরকার।

এই লক্ষ্যে এগোতে জুনের শুরু থেকেই যাবতীয় উদ্যোগও গ্রহণ করেছে সরকার। যাকে সাধুবাদ জানাচ্ছেন সকলেই। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More
Back to top button