National

পালালেন আত্মীয়রা, বিডিও করলেন করোনায় মৃতের মুখাগ্নি

একদিকে চরম অমানবিকতা, অন্যদিকে চরম মানবিকতা। এক করোনায় মৃত মানুষকে ঘিরে এমনই এক চরম বৈপরীত্যের দৃশ্য চমকে দিল দেশকে।

ভারতে এখন জলেও ভেসে আসছে করোনায় মৃতদের দেহ। পরিবারের লোকজনও শেষকৃত্য করতে চাইছেন না প্রিয়জনের মৃত্যুর পর। এমনই এক ঘটনার সাক্ষী হল দেশ।

৫০ বছর বয়স্ক এক ব্যক্তির মৃত্যু হয় করোনায়। ৩ দিন আগে তাঁর মৃত্যু হয়। এদিকে যোগেন্দ্র সিংয়ের মৃত্যু করোনায় হয়েছে শুনেই তাঁর বাড়িতে একসঙ্গে থাকা জ্ঞাতিরা রাতারাতি বাড়ি ছেড়ে চম্পট দেন।


পড়ুন আকর্ষণীয় খবর, ডাউনলোড নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

বাড়িতে পড়ে থাকে যোগেন্দ্র সিংয়ের দেহ। জ্ঞাতিরা করোনা ছড়ানোর ভয়ে চম্পট দিলেও দেহের পাশে থেকে যান তাঁর স্ত্রী ও ২ শিশু সন্তান। এভাবে ২ দিন বাড়িতেই পড়ে থাকে যোগেন্দ্র সিংয়ের দেহ।

এরমধ্যে বিহারের মুজফ্ফরপুরের পাগাইয়া গ্রামের অনেককে যোগেন্দ্র সিংয়ের স্ত্রী অনুরোধ করেন তাঁর স্বামীর শেষকৃত্যে সাহায্য করতে। কিন্তু কেউ রাজি হননি।

খবর যায় স্থানীয় বিডিও-র কাছে। তিনি দ্রুত এক প্রাক্তন সেনাকর্মী বন্ধুর সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তারপর ২ জনে মিলে দেহ নিয়ে যান নির্দিষ্ট স্থানে।

সেখানেই মাটি খুঁড়ে চিতা সাজিয়ে যোগেন্দ্র সিংয়ের দেহে মুখাগ্নি করেন সারাইয়া ব্লকের বিডিও ডক্টর বিএন সিং। শেষকৃত্য সম্পূর্ণ হয় যোগেন্দ্র সিংয়ের।

এদিকে বিডিও-র এভাবে এগিয়ে আসার খবর পেয়ে আশপাশের অনেক মানুষ পাশে এসে দাঁড়ান। এমনকি খবর পেয়ে সেখানে হাজির হন স্থানীয় বিধায়কও। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More