National

তাঁর থেকে সংক্রমিত নাতনি, মানতে না পেরে চরম পদক্ষেপ দাদুর

তাঁর নাতনি তাঁর থেকে করোনা সংক্রমিত হয়েছে। এটা কিছুতেই মেনে নিতে পারেননি তিনি। একথা জানতে পেরে চরম পদক্ষেপ করলেন এক প্রাক্তন তহসিলদার।

তিনি নিজে করোনা সংক্রমণের শিকার হন কিছুদিন আগে। তারপরে দেখা যায় তাঁর মেয়ে ও তাঁর নাতনিও করোনা সংক্রমণের শিকার হয়েছেন।

৭২ বছরের বৃদ্ধের মনে স্থির বিশ্বাস হয় তাঁর থেকেই তাঁর পুতুলের মত নাতনির এবং তাঁর মেয়ের করোনা হয়েছে। আর এটা মনে হওয়ার পর থেকেই তা সহ্য করতে পারছিলেননা তিনি। নিজেকে কিছুতেই ক্ষমা করতে পারছিলেননা।

এই মানসিক যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে প্রাক্তন তহসিলদার পদাধিকারী সি সোমা নায়েক নিজের বন্দুক থেকে নিজেকে গুলি করেন। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাঁর।

দেহের কাছে একটি সুইসাইড নোট পেয়েছে পুলিশ। তাতে লেখা আছে, তাঁর পুতুলের মত নাতনি ও তাঁর মেয়ে তাঁর জন্য করোনা সংক্রমণের শিকার হয়েছেন।


তাদের ওই কষ্ট তিনি দেখতে পারবেননা। সহ্য করতে পারবেননা। তিনি নিজেকে এজন্য ক্ষমা করতে পারছেন না। তাই এই সিদ্ধান্ত।

ওই ব্যক্তি তাঁর নাতনি ও মেয়েকে সংক্রমিত করার জন্য তাঁর স্ত্রী, মেয়ে, জামাই ও নাতনির কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন।

সেইসঙ্গে শেষ ইচ্ছা হিসাবে লিখেছেন তাঁর জমিতেই যেন সৎকার করা হয়। ঘটনাটি ঘটেছে কর্ণাটকের চিক্কামাগারুলু এলাকায়। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article
Back to top button