National

রোগ রহস্যের কিনারা না হওয়ায় সুনসান সবজি বাজার

করোনার মধ্যেও করোনার কথা প্রায় ভুলতে বসেছেন অন্ধ্রপ্রদেশের ইলুরু শহরের বাসিন্দারা। সেখানে এখন একটাই আতঙ্ক ইলুরু রোগ।

ইলুরু (অন্ধ্রপ্রদেশ) : ইলুরু রোগ রহস্যের কিনারা না হওয়ায় উদ্বেগ ক্রমশ বাড়ছে। শহর জুড়েই একটা আতঙ্ক কাজ করছে। ইলুরু শহরের মানুষ এখন করোনা ভীতি ভুলতে বসেছেন। তাঁদের এখন নতুন চিন্তা ইলুরু ব্যাধি।

ইলুরু ব্যাধি কোনও চেনা ব্যাধি নয়। ইলুরু শহরেই গত সপ্তাহে তার বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে। আর কদিনের মধ্যেই ৬০০-র ওপর মানুষকে সেই রোগ কাবু করেছে। এক মধ্যবয়সী ব্যক্তির মৃত্যুও হয়েছে।

ঝিমুনি তৈরি হচ্ছে। হচ্ছে বমি এবং প্রবল মাথা যন্ত্রণা। অনেকেই অজ্ঞান হয়ে যাচ্ছেন। হাসপাতালে এখন ইলুরু রোগে আক্রান্তদের ভিড়। ইলুরু কী করোনার কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থেকে হচ্ছে? এই প্রশ্ন অবশ্য নস্যাৎ করে দিয়েছেন বিশেষজ্ঞেরা। কারণ ইলুরু রোগে আক্রান্তদের পরীক্ষা করে করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে।

তবে কী খাবার থেকে ছড়াচ্ছে ব্যাধি? গবেষকরা এই সম্ভাবনা উড়িয়ে দিচ্ছেন না। বরং বাজার থেকে নানা ধরনের সবজি, মাছ, মাংস, সবের নমুনা সংগ্রহ করেছেন তাঁরা। দেখার চেষ্টা করছেন তাতে কিছু পাওয়া যায় কিনা।

ইলুরু শহরের মানুষকে যাবতীয় পাতাযুক্ত সবজি নুন জলে বারবার ধুয়ে তবে রান্নার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। সেইসঙ্গে পরীক্ষা করা হচ্ছে আশপাশের এলাকার মাটিও।

পরীক্ষা হচ্ছে শহরে সরবরাহ হওয়া পানীয় জল। তবে এখনও ঠিক কী কারণে এই রোগ ছড়াচ্ছে তার কিনারা করতে পারেননি গবেষকরা।

১৪টি বিশেষজ্ঞ সংস্থা এই রোগের কিনারা করতে উঠে পড়ে লেগেছে। কারণটা খুঁজে বার করার চেষ্টা চালাচ্ছে তারা। ইলুরু শহর তার তাঁতের কাজের জন্য বিখ্যাত। শহরে প্রায় ২ লক্ষের মত মানুষের বাস। সেখানে এখন সব মানুষই ভয়ের মধ্যে রয়েছেন।

ভয়ে অনেকেই বাড়িতে সবজি কেনা বন্ধ করে দিয়েছেন। ফলে সেখানকার সবজি বিক্রেতাদের মাথায় হাত পড়েছে। গত ৪-৫ দিনে তাঁরা দোকান সাজিয়ে বসেছেন বটে, কিন্তু কোনও খরিদ্দার পাননি।

সাজানো সবজি বেলা বাড়লে ফের তুলে নিয়ে চলে যেতে হয়েছে তাঁদের। ফলে ব্যবসা প্রায় লাটে উঠতে বসেছে। যা ক্রমশ তাঁদের চিন্তা বাড়াচ্ছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button