National

বিয়ে করতে যাওয়ার পথে জরিমানা গুনলেন বর

যাচ্ছিলেন বিয়ে করতে। সেজেগুজে বর বেশে। কিন্তু পথে নিজের ভুলে গুনতে হল জরিমানা।

রামপুর (উত্তরপ্রদেশ) : পাত্রীর বাড়িতে সকলে অপেক্ষায়। কখন বর আসবে? লগ্ন রয়েছে। কনেও তৈরি। বরও বাড়ি থেকে বেরিয়ে পড়েছিলেন সঠিক সময়ে। তারপর বর বেশে ঘোড়ায় চড়ে বসেন। পরনে বিয়ের জন্য তৈরি দামি শেরওয়ানি। বুকে ঝুলছে টাকার মালা। মাথা পরা রয়েছে শেহরা। যার জন্য মুখের সামনে ফুলের ঝালরে ঢাকা পড়ে গেছে মুখ। এরপর হাসি আনন্দের আবহেই বর এগোন কনের বাড়ির দিকে। সঙ্গে পরিবারের লোকজন।

ঠিক সেই সময়ই জেলাশাসক নিজে সব দিক ঘুরে দেখতে বেরিয়েছিলেন সব কিছু নিময়মাফিক চলছে কিনা। পড়বি তো পড় একদম জেলাশাসকের সামনে, সেখান দিয়েই যাচ্ছিলেন বর। জেলাশাসক পুলিশকে নির্দেশ দেন বরের পথ আটকাতে। তারপর শেহরা সরিয়ে মুখ দেখাতে বলেন। বরের মুখ দেখার পর তাঁকে জরিমানা করতে এক মুহুর্ত সময় নষ্ট করেননি তিনি। কারণটা সহজ। বরের মুখে মাস্ক ছিলনা। আর মাস্ক ছাড়া রাস্তায় বার হওয়া মানা।

মাস্ক না থাকায় রাস্তাতেই বরকে থামিয়ে জরিমানা করা হয়। ২০০ টাকা জরিমানা গুনে তবে ছাড় মেলে বিয়ে করতে যাওয়ার। তাও মাস্ক পড়ে। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের রামপুরে। জেলাশাসক জানিয়েছেন, জেলায় ক্রমশ বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। বিয়েতে মানা নেই ঠিকই কিন্তু যাবতীয় বিধিনিষেধ মেনে তবে বিয়ের অনুষ্ঠান করা যাবে। এক্ষেত্রে বর তো মাস্কই পড়েননি। ফলে জরিমানা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button