National

৬০ দিন পর গ্রামে ফিরল বরযাত্রী, কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হল সকলকে

প্রায় ৬০ দিন ধরে কনের বাড়িতে আটকা পড়েছিলেন অন্য রাজ্যে বিয়ের আসরে যোগ দেওয়া ১১ জন বরযাত্রী। শেষপর্যন্ত বরকনেকে নিয়ে তাঁরা ফিরলেন নিজেদের গ্রামে।

কানপুর (উত্তরপ্রদেশ) : বিহারের বেগুসরাইয়ে কনের বাড়িতে প্রায় ৬০ দিন কাটানোর পর বর ও কনেকে সঙ্গে নিয়ে বরযাত্রী শেষমেশ বাড়ি ফিরল। বাড়ি ফেরার পরই বরকনে সমেত সকলকে কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, উত্তরপ্রদেশের কানপুরের চৌবেপুর এলাকার হাকিম নগর গ্রামের বাসিন্দা ইমতিয়াজের গত ২১ মার্চ বিহারের বেগুসরাইয়ের খুশবুর সঙ্গে বিয়ে হয়। কিন্তু ২২ মার্চ জনতা কারফিউ এবং তারপরে দেশজুড়ে লকডাউনের কারণে, বরকনে সমেত বরযাত্রী আর বাড়ি উত্তরপ্রদেশে ফেরত আসতে পারেনি। সকলেই বাধ্য হয়ে কনের বাড়িতে থেকে যান।

ইমতিয়াজের বাবা মেহবুব জানিয়েছেন যে তাঁরা সমস্ত হেল্পলাইন নম্বরে যোগাযোগ করেন, কিন্তু কোন লাভ হয়নি। পরিস্থিতি তাঁদের কনের বাড়িতে থাকতে বাধ্য করে। এই ঘটনা সদ্যবিবাহিতা মেয়েটির পরিবারের উপর অতিরিক্ত বোঝা স্বরূপ হয়ে দাঁড়ায়। মেহবুবরা তাঁদের পক্ষ থেকে কনের পরিবারকে যতটা সম্ভব পারা যায় সাহায্য করার চেষ্টা করেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

শেষপর্যন্ত ১ উচ্চপদস্থ সরকারি আধিকারিকের সহায়তায় তাঁরা ট্রাভেল পাস পান। স্থানীয়রা একটি মিনি বাসের ব্যবস্থা করেন। যাতে চড়ে তাঁরা গত ১৯ মে বেগুসরাই থেকে কানপুরের উদ্দেশে রওনা দেন। ২০ ঘণ্টার এই যাত্রাপথে জাতীয় সড়কের ওপর স্থানীয় মানুষজন বরযাত্রীদের পানীয় জল ও খাবার সরবরাহ করে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন। বরযাত্রীদের কয়েকজন জানিয়েছেন এই বিয়ের অভিজ্ঞতা তাঁদের সারাজীবন মনে থাকবে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button