National

মাস্ক ও সামাজিক দূরত্ব নিয়ে নয়া ইঙ্গিত গোয়ার মুখ্যমন্ত্রীর

করোনাকে রুখতে লকডাউনে বাড়িতে থাকার পরামর্শের পাশাপাশি বাইরে বার হলে মুখে মাস্ক ও ২টি মানুষের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার কথা বারবার সামনে আসছে। এই নিয়ে এবার নিজের ধারণা ব্যক্ত করলেন গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী।

করোনা আরও কতদিন ভারতবাসীর উদ্বেগের কারণ হবে তা পরিস্কার নয়। তবে দেশকে করোনা মুক্ত করতে সব রকম চেষ্টা চালাচ্ছে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারগুলি। শামিল সাধারণ মানুষের একটা বড় অংশও। বিজ্ঞানীরাও তাঁদের মত করে ওষুধ ও টিকা আবিষ্কারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। এত লড়াইয়ের পর করোনা যদি আপাতত বিদায় নেয়ও তাহলেও ফিরতে বেশি সময় নেবে না। তাই করোনা সংক্রমণ কমে গেলেও কিছু নিয়ম চালু রাখতে হতে পারে দীর্ঘ সময়ের জন্য। যার ইঙ্গিত ইতিমধ্যেই দিয়েছেন গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সাওয়ান্ত।

গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী সোমবার জানিয়েছেন, মাস্ক বা সামাজিক দূরত্বের মত বিষয়গুলি হয়তো আগামী ২ বছর মেনে চলতে হবে। ফলে এটা অভ্যাসের মধ্যে নিয়ে আসাই ভাল। গোয়ার মানুষকে মুখে মাস্ক পরে বাইরে বার হওয়া এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলাফেরা করার অভ্যাস রপ্ত করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। প্রসঙ্গত গোয়া এখন দেশের এমন রাজ্য যেখানে কোনও করোনা রোগী নেই। যাঁরা ছিলেন তাঁদের প্রত্যেকেই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। নতুন সংক্রমণ হয়নি।

প্রমোদ সাওয়ান্ত আরও জানিয়েছেন, তিনি লকডাউন প্রলম্বিত করার পক্ষে। সেইসঙ্গে তিনি গোয়ার সীমান্ত এখনই খুলে দিতে রাজি নন। তিনি চাইছেন না অন্য রাজ্য থেকে এখন গোয়ায় কেউ প্রবেশ করুন। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, গোয়া করোনামুক্ত হতে পারলেও তার লাগোয়া রাজ্য মহারাষ্ট্র ও কর্ণাটকে করোনা সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। তাই গোয়ার ঝুঁকি থেকেই যাচ্ছে। তাই তিনি সীমান্ত এখনই খুলতে রাজি নন। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button