National

লকডাউনে বাড়ি ফেরাই কাল হল যুবকের

লকডাউনে যিনি যেখানেই কাজ করেন, সকলেই চাইছেন বাড়িতে ফিরে আসতে। কাজকর্ম বন্ধ। খাবার, থাকার ঠিক নেই। পরিবার থেকে এ সময়ে এতটা দূরে কোথাও পড়ে থাকতে মন চাইছে না অনেকেরই। ফলে হাজার হাজার মানুষ, বিশেষত ভিন রাজ্যে বা রাজ্যের মধ্যেই অনেক দূরে কর্মরত শ্রমিকরা বাড়ি ফিরতে চাইছেন। কেউ পেয়েছেন কোনও একটা গাড়ি। কেউ বা ফাঁকা রাস্তা ধরে মাইলের পর মাইল ধরে হেঁটেই বাড়ির ফিরছেন। এভাবেই ৫ দিন আগে লকডাউনের মধ্যেই বাড়ি ফেরেন ২৬ বছরের বিক্রম। কিন্তু লকডাউনে যেখানে সকলে বাড়িতেই সবচেয়ে নিশ্চিন্তে থাকতে পারছেন, সেখানে বিক্রমের ঘরে ফেরাই তাঁর জন্য কাল হল।

বিক্রম নয়ডায় একজন শ্রমিক হিসাবে একটি কারখানায় কাজ করতেন। আগ্রা থেকে ৩০ কিলোমিটার দূরে উত্তরপ্রদেশের খান্দা গ্রামে ফেরার পর তিনি ও তাঁর স্ত্রী বাড়িতেই ছিলেন। আচমকাই গত বৃহস্পতিবার তাঁর মৃত্যু হয়। বিক্রমের দেহ বৃহস্পতিবার বিকেলে উদ্ধার করে পুলিশ। প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশ বিক্রমের স্ত্রী রানিকে গ্রেফতার করে। রানি পুলিশের কাছে অপরাধের কথা স্বীকারও করেছে।

গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন, বিক্রমের সঙ্গে রানির বিয়ে হয় ২ বছর আগে। তবে রানি গ্রামে থাকলেও বিক্রম নয়ডায় কাজ করতেন। মাঝেমধ্যে বাড়ি আসতেন। এরমধ্যেই রানির সঙ্গে স্থানীয় এক যুবকের সম্পর্ক তৈরি হয়। গ্রামবাসীদের অভিযোগ, পথের কাঁটা সরাতে রানি তার প্রেমিকের সাহায্যেই বিক্রমকে শেষ করে। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Tags
Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close