Wednesday , February 19 2020
Abuse
প্রতীকী ছবি

স্বামীর বন্ধুদের লালসার শিকার তরুণী গৃহবধূ

বাড়িতে তখন কেউ ছিলনা। সেইসময় বাড়িতে হাজির হয় স্বামীর ৪ বন্ধু। তারা সকলেই স্থানীয়। সকলেই চেনা। বাড়িতে ঢুকে তারা বন্ধুপত্নীর মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে দেয়। আওয়াজ করলে গুলি করার হুমকি দেয়। তারপর এক এক করে ৪ জনই ওই তরুণী গৃহবধূকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। স্বামীর বন্ধুদের লালসার শিকার হতে হয় ওই বধূকে। সেখানেই শেষ নয়, বারংবার ধর্ষণের পর তারা ওই গৃহবধূর গলা কেটে হত্যারও চেষ্টা করে। এই সময় কোনওক্রমে তাদের হাত থেকে পালিয়ে চিৎকার করতে থাকেন ওই গৃহবধূ। পাড়াপড়শি তখনই হাজির হবেন বুঝতে পেরে সেখান থেকে দ্রুত চম্পট দেয় ৪ জন। তবে হুমকি দিয়ে যায় এই নিয়ে কাউকে কিছু জানালে তার ফল মারাত্মক হবে।

গত শুক্রবার রাতে ঘটনাটি ঘটে উত্তরপ্রদেশের বরেইলিতে। শনিবার ওই মহিলা অভিযোগ দায়ের করার মত সাহস পাননি। তবে রবিবার তিনি সোজা হাজির হন পুলিশ সুপারের সঙ্গে দেখা করতে। তাঁর কাছেই সব ঘটনা খুলে বলেন। ওই বধূর অভিযোগক্রমে অভিযুক্ত ৪ জনকে গ্রেফতার করতে যায় পুলিশ। সকলেই ওই তরুণীর চেনা মুখ। একই এলাকার বাসিন্দা। কিন্তু পুলিশ আসার আগেই ৪ জন এলাকা ছেড়ে পালায়। তাদের ধরতে একটি দল গঠন করেছে পুলিশ।

ওই গৃহবধূর স্বামী ১ কেজি ভাং সহ গ্রেফতার হন। তারপর থেকে জেলেই রয়েছেন তিনি। ওই মহিলা পুলিশের কাছে অভিযোগ করেছেন, তাঁকে যারা ধর্ষণ করে তাদের মধ্যে ১ জন তাঁর স্বামীকে মিথ্যা অভিযোগে ফাঁসিয়ে জেলে পাঠিয়েছে। পুলিশ গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। ওই মহিলাকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্যও পাঠানো হয়েছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *