Tuesday , August 20 2019
Just In
Muslim Woman
প্রতীকী ছবি

৩০ টাকা চেয়ে তালাকের কোপে মহিলা

সবে ৩ বছর হল বিয়ে হয়েছে। ২ সন্তানও রয়েছে। সেই গৃহবধূ ওষুধ কেনার জন্য স্বামীর কাছে ৩০ টাকা চেয়েছিলেন। টাকা চাইতেই বাড়ি মাথায় তুলে চিৎকার শুরু করে স্বামী। তারপর চিৎকার করতে করতেই ৩ বার তালাক উচ্চারণ করে। স্বামীর মুখ থেকে ৩ চালাক উচ্চারিত হওয়ার পরই শ্বশুরবাড়ির লোকজন তাঁকে বাড়ি থেকে ঠেলে বার করে দেয়। স্বামীও সন্তানদের রেখে তাঁকে ধাক্কা মেরে ঘরের বাইরে বার করে দেয়। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের হাপুরে।

এই ঘটনার পরই পুলিশের দ্বারস্থ হন ওই মুসলিম গৃহবধূ। পুলিশ ওই গৃহবধূর অভিযোগ গ্রহণ করেছে। প্রসঙ্গত অগাস্টের ১ তারিখেই দ্যা মুসলিম ওমেন (প্রোটেকশন অফ রাইট অফ ম্যারেজ) বিল, ২০১৯ আইন হয়ে এসেছে। ফলে এখন ভারতে ৩ তালাক দিয়ে তাৎক্ষণিক বিবাহবিচ্ছেদ বেআইনি। শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এজন্য স্বামীর ৩ বছর পর্যন্ত জেলও হতে পারে।

এই আইন বলবৎ হওয়ার পর হাপুরের ঘটনা ঘটায় ওই ব্যক্তি সাজার মুখে পড়তে পারে। যদিও হিসাব বলছে আইন বলবৎ হওয়ার পরও ৭ জন মহিলা ৩ তালাক দিয়ে তাঁদের তাৎক্ষণিক বিবাহ বিচ্ছেদ করা হয়েছে বলে দাবি করে পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন। হাপুরের ঘটনা তারমধ্যে সাম্প্রতিকতম। এর আগে উত্তরপ্রদেশেরই সীতাপুরে ৩ তালাকের পর তা নিয়ে পুলিশে অভিযোগ জানানোয় এক মহিলার নাক কেটে নেয় শ্বশুরবাড়ির লোকজন। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *