National

দাদুকে জেতাতে বৃহস্পতিবার জিতে শুক্রবারই পদত্যাগ করতে চাইলেন নাতি

একদিনও পুরো হয়নি জয় এসেছে ঝুলিতে। তাও আবার এই কঠিন লড়াইয়ে। জয়ও কম ভোটে নয়। ১ লক্ষ ৪১ হাজার ৩২৪ ভোটে বিজেপি প্রার্থীকে হারানো মুখের কথা নয়। মাত্র ২৯ বছর বয়সে এমন এক স্বপ্নের সাফল্য তারিয়ে উপভোগ করার কথা প্রোজ্জ্বল রেভান্না-র। কিন্তু তাঁর মন কাঁদছে দাদুর জন্য। দাদুও যে প্রার্থী হয়েছিলেন। কিন্তু তাঁকে হারতে হয়েছে বিজেপি প্রার্থীর কাছে। আর দাদুর সেই হার কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না নাতি প্রোজ্জ্বল। তাই বৃহস্পতিবার যে আসন তিনি জিতেছেন, সেই আসনে দাদুকে দাঁড় করিয়ে জেতাতে নিজে পদত্যাগ করতে চাইছেন।

দাদুর জন্য নাতির এই পদত্যাগ ইচ্ছা এখন কর্ণাটকের অন্যতম চর্চার বিষয়। প্রোজ্জ্বল রেভান্না হলেন দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী তথা জনতা দল সেকুলার-এর জন্মদাতা এইচডি দেবেগৌড়ার নাতি। কর্ণাটকে এবার জেডিএস ভাল ফল করতে পারেনি। মাত্র ১টি আসনই জিততে পেরেছে তারা। সেটি হাসান লোকসভা কেন্দ্র। এই হাসান লোকসভা কেন্দ্র থেকেই প্রার্থী ছিলেন প্রোজ্জ্বল। অন্যদিকে ৮৭ বছরের দেবেগৌড়া হেরেছেন টুমকুর আসন থেকে। দাদুর হার মেনে নিতে না পেরে নিজে সরে গিয়ে হাসান আসনটি থেকে জেডিএস-কে জেতাতে চাইছেন প্রোজ্জ্বল। প্রসঙ্গত কর্ণাটকের হাসান আসনটি কখনও জেডিএস-কে খালি হাতে ফেরায়নি।

প্রোজ্জ্বল এমন চাইলেও তাঁকে আদৌ সরিয়ে ওই আসনে সত্যিই দেবেগৌড়াকে দাঁড় করানো হবে কিনা তা নিয়ে ভাবনা চিন্তা শুরু করেছে জেডিএস নেতৃত্ব। দলই এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে। ফলে চাইলেও এখনই তিনি সরে যেতে পারছেন না। তবে দেবেগৌড়ার বড় ছেলে এইচডি রেভান্নার ছেলে প্রোজ্জ্বল রেভান্নার এই ইচ্ছা প্রকাশ অনেককে মুগ্ধ করেছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button