Friday , April 26 2019
Drowning
প্রতীকী ছবি

বন্ধুকে বাঁচাতে জলে ঝাঁপ অন্য ২ বন্ধুর, বন্ধু বাঁচল, ওরা বাঁচল না

তারা জলেও নামেনি। নেমেছিল তাদের অন্য বন্ধু আনোয়ার। তার ইচ্ছে হয়েছিল যমুনার জলে সাঁতার কাটার। কিন্তু একটু পরেই আনোয়ারের কান্নার স্বর শুনতে পায় তার অন্য বন্ধুরা। বন্ধুর মত হলেও অনোয়ার একটু বড়ই। ২০ বছরের তরুণ। তার চেয়ে বয়সে ছোট ২ বন্ধু তাকে বাঁচাতে যমুনার জলে ঝাঁপ দেয়।

এদের মধ্যে মহম্মদ হোসেনের বয়স ১৭ আর জাফর আলির বয়স ১৩। এরা সাঁতার কেটে আনোয়ারের কাছে পৌঁছনোর চেষ্টা করে। কিন্তু আনোয়ারকে বাঁচানোর আগে তারাই তাল হারায়। জলে হাবুডুবু খেতে থাকে। আশপাশের কিছু মানুষ আনোয়ারকে বাঁচাতে সক্ষম হলেও আনোয়ারকে বাঁচাতে জলে ঝাঁপ দেওয়া মহম্মদ হোসেন ও জাফর আলিকে বাঁচাতে পারেননি। তারা ডুবে যায়।

ঘটনাটি ঘটে গত শনিবার বিকেলে উত্তরাখণ্ডের বিকাশনগর এলাকায় ডাকপাথার ব্যারেজের কাছে। উত্তরপ্রদেশের মুজফ্ফরনগর থেকে পিকনিক করতে বেশ কয়েকজন তরুণ ও কিশোর যমুনার ধারে হাজির হয়। সেখানে পিকনিকের মধ্যেই যমুনায় স্নান করতে নামে আনোয়ার। আর তার পরেই ঘটে যায় দুর্ঘটনা। ঘটনার পর আনোয়ারকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

শনিবার বিকেলে ডুবে যায় আনোয়ারের ২ বন্ধু মহম্মদ হোসেন ও জাফর আলি। তারপর থেকে তাদের খোঁজ মেলেনি। রবিবারও তাদের দেহ খুঁজতে জল চষে ফেলেন উত্তরাখণ্ডের ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্টের উদ্ধারকারীরা।

(সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা)

Advertisements

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *