National

জম্মু বাসস্ট্যান্ডে গ্রেনেড হামলা, মৃত ১, আহত ৩০

পুলওয়ামার আতঙ্ক ফিরিয়ে এবার জম্মু শহরে গ্রেনেড হানা। জম্মু শহরের কেন্দ্রস্থলে সেন্ট্রাল বাসস্ট্যান্ডে বৃহস্পতিবার এই গ্রেনেড হামলা হয়। একটি প্যাকেটে মুড়ে গ্রেনেডটি উত্তরাখণ্ডমুখী একটি বাসের তলায় লাগানো ছিল। সেটি ফাটতেই প্রবল শব্দে কেঁপে ওঠে চারদিক। মুহুর্তে গোটা এলাকা কালো ধোঁয়ায় ভরে যায়। ৩১ জন এই গ্রেনেড হামলায় আহত হন। তাঁদের মধ্যে ১ জনের হাসপাতালে মৃত্যু হয়। ৪ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

স্থানীয় লোকজনের দাবি, আওয়াজ শুনে তাঁদের প্রাথমিকভাবে মনে হয় বাসস্ট্যান্ডে কোনও বাসের বোধহয় টায়ার ফেটেছে। পরে সেখানে ছুটে গিয়ে তাঁরা বোঝেন এটা সামান্য টায়ার ফাটার ঘটনা নয়। এটা জঙ্গি হানা। বাসে গ্রেনেড ছোঁড়া হয়েছে। পুলিশের অনুমান এই ভিড়ভাড়ের সুযোগ নিয়েই জঙ্গিরা ভিড়ে মিশে পালায়। একটি অমৃতসরমুখী বাসের যাত্রীরাও এই বিস্ফোরণে আহত হন।

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটে। তখন জম্মুর ওই বাসস্ট্যান্ডে যথেষ্ট মানুষের ভিড় ছিল। ঠিক ৩ সপ্তাহ আগে ঘটেছিল পুলওয়ামা হামলা। তারপর পাল্টা পাকিস্তানে ঢুকে পুলওয়ামা হামলার দায় স্বীকার করা জঙ্গি গোষ্ঠী জইশ-ই-মহম্মদের ঘাঁটি লক্ষ্য করে বোমাবর্ষণ করে ভারতীয় বায়ুসেনা। এরপর ফের এদিন জম্মু শহরে বড়সড় গ্রেনেড হামলা চালাল জঙ্গিরা। তবে এখনও কোনও সংগঠন এই হামলার দায় স্বীকার করেনি।

(সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা)


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button