National

বন্যায় মৃত বেড়ে ৩২৪, আরও সাহায্য চাইলেন মুখ্যমন্ত্রী

শোচনীয় পরিস্থিতি উন্নত হওয়ার নাম নিচ্ছে না। বরং খারাপ হচ্ছে অবস্থা। গোটা কেরালা রাজ্যটাই কার্যত জলের তলায় চলে গেছে। খোদ মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নের দফতর জানাচ্ছে গত ১০০ বছরে এমন ভয়ংকর বন্যার কবলে পড়েনি কেরালা। ইতিমধ্যেই ৩২৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। ২ লক্ষ ২৩ হাজার ১৩৯ জন মানুষ গৃহহীন। দেড় হাজারের বেশি ত্রাণ শিবিরে তাঁদের রাখা হয়েছে। রাজ্যের ৮০টি জলাধার থেকে জল ছাড়া চলছে। যা অবস্থাকে আরও ভয়ংকর করে তুলেছে। এই অবস্থায় ত্রাণের জন্য সবার কাছ থেকেই আরও সাহায্য চেয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। ইতিমধ্যেই দেশের বেশ কয়েকটি রাজ্য সরকার সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে।

হেক্টরের পর হেক্টর চাষের জমি জলের তলায় চলে গেছে। শহর থেকে গ্রাম সবই জলের তলায়। যোগাযোগ ব্যবস্থা মুখ থুবড়ে পড়েছে। ট্রেন চলাচল প্রায় বন্ধ। কোচি বিমানবন্দর আগামী ২৬ অগাস্ট পর্যন্ত বন্ধ। সড়ক কোথায় তাই দেখা যাচ্ছেনা। বহু এলাকা থেকেই আকাশপথে বন্যার্তদের উদ্ধার করতে হচ্ছে। সেনা সহ বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের সদস্যরা বন্যার্তদের উদ্ধারে কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। কত যে পশুর মৃত্যু হয়েছে তা এখনও পরিস্কার নয়।

এর মধ্যে ক্রমশ জটিল হচ্ছে পানীয় জলের সমস্যা। ফলে জল বাহিত রোগের সম্ভাবনা বাড়ছে। অধিকাংশ এলাকায় বিদ্যুৎ নেই। এক চরম দুঃসহ পরিস্থিতির মধ্যে বাঁচার লড়াই চালাচ্ছেন কেরালার বহু মানুষ।


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button