SciTech

২৬ সেপ্টেম্বর দেখা যাবে মহাজাগতিক বিস্ময়, কীভাবে দেখা যাবে জানাল নাসা

আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর মহাকাশে এক বিস্ময় দেখার জন্য মুখিয়ে আছেন সকলে। যা কীভাবে দেখা যেতে পারে তাও সুস্পষ্টভাবে জানাল নাসা।

মহাকাশে নানা বিস্ময় নজর কাড়ে। তবে কিছু ঐতিহাসিক হয়ে থাকে। তেমনই একটি ঘটনা ঘটতে চলেছে আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর। বাংলায় যখন দেবীপক্ষের শুরু হয়ে গেছে তখন মহাকাশে এক বিরল ঘটনা ঘটতে চলেছে।

ওইদিন পৃথিবীর সবচেয়ে কাছে আসতে চলেছে বৃহস্পতি গ্রহ। সৌরজগতের সবচেয়ে বড় গ্রহটি এতটাই কাছে আসতে চলেছে যে গ্রহটি তো বটেই এমনটি তার ৪টি প্রধান উপগ্রহও দেখা যেতে চলেছে।

সাধারণত সূর্য যখন অস্ত যায় তখন ঠিক তার উল্টো দিকে পূর্ব আকাশে দেখা মেলে নানা মহাজাগতিক বিস্ময়ের। যেগুলি তখন দেখা যায়। আর সেই ঘটনাই যদি পশ্চিমে ঘটে তখন তা দেখা মুশকিল হয়। আবার অন্ধকার নেমে গেলে তা দেখা যায়। সূর্যের চড়া আলো থাকলে দেখা মুশকিল হয়।

এবার বৃহস্পতি যে পৃথিবীর এত কাছে আসতে চলছে তা সূর্যের উল্টোদিকে দেখা যাবে। ফলে এবার এই দৃশ্য ভীষণ ভালভাবে দেখা যেতে চলেছে। প্রতি ১৩ মাস অন্তরই পৃথিবীর কাছাকাছি আসে বৃহস্পতি। কিন্তু এবার যত কাছে আসছে তা গত ৭০ বছরে হয়নি।

বৃহস্পতি পৃথিবী থেকে সবচেয়ে যখন দূরে থাকে তখন তা থাকে ৬০০ মিলিয়ন মাইল দূরে। আর যখন সবচেয়ে কাছে আসে তখন তা থাকে ৩৬৫ মিলিয়ন মাইল দূরে। আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর এতটাই কাছে আসবে বৃহস্পতি।

নাসা জানিয়েছে খুব ভাল বাইনোকুলার ব্যবহার করে এই মহাজাগতিক বিস্ময় দেখা যেতে পারে। ভাল বাইনোকুলার হলে তাতে বৃহস্পতি গ্রহ তো বটেই, সেইসঙ্গে তার ৪টি সবচেয়ে বড় উপগ্রহ আইয়ো, ইউরোপা, গ্যানিমিড এবং ক্যালিস্টো-কে স্পষ্ট দেখা যাবে।

তাছাড়া কমপক্ষে ৪ ইঞ্চি টেলিস্কোপেও বৃহস্পতিকে দারুণভাবে দেখা যেতে পারে। শুকনো এবং অন্ধকারাচ্ছন্ন জায়গা হলে সবচেয়ে ভাল দেখার সুযোগ পাবেন সকলে। নাসার তরফে এও জানানো হয়েছে সপ্তদশ শতাব্দীতে গ্যালিলিও গ্যালিলি সেই সময় বৃহস্পতি গ্রহ কাছে আসতে তাকে দেখেছিলেন। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button