SciTech

কাছেই খোঁজ মিলল আর এক পৃথিবীর, সেখানে থাকা যাবে কিনা জানাল নাসা

পৃথিবী থেকে খুব দূরে নয়। সেখানেই রয়েছে আরও এক পৃথিবী। যার আবার বায়ুমণ্ডলও রয়েছে। এই দ্বিতীয় পৃথিবীতে কি থাকা যেতে পারে, আন্দাজ দিলেন বিজ্ঞানীরা।

মহাশূন্যের রহস্য উন্মোচন করতে করতে এবার নাসার জেমস ওয়েব স্পেস টেলিস্কোপ দ্বিতীয় পৃথিবীর দেখা পেয়ে গেল। পৃথিবী থেকে খুব দূরে নয় এই দ্বিতীয় পৃথিবী। যা পৃথিবীর মতই পাথর দিয়ে তৈরি। যাকে বলে পাথুরে গ্রহ।

এ গ্রহটিরও আবার বায়ুমণ্ডল রয়েছে বলে জানতে পেরেছেন বিজ্ঞানীরা। পৃথিবীর থেকে অবশ্য এটি একটু বড়। প্রায় দ্বিগুণ আয়তনের এই গ্রহটি কিন্তু হুবহু পৃথিবীর মত। কিন্তু সেখানে প্রাণ থাকাটা একটু মুশকিল। কারণ তা এখনও প্রবল গরম।


পড়ুন আকর্ষণীয় খবর, ডাউনলোড নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

এতটাই গরম যে সেখানে কোনও প্রাণের অস্তিত্ব থাকতে পারেনা। কিন্তু এই দ্বিতীয় পৃথিবীই কিন্তু বিজ্ঞানীদের পৃথিবীকে আরও ভালভাবে চেনাতে সাহায্য করছে।

কারণ বিজ্ঞানীরা ওই পৃথিবীর মত গ্রহটিকে পরীক্ষা করে বোঝার চেষ্টা করছেন পৃথিবী তার জন্মলগ্নে কেমন ছিল। পৃথিবীর দ্বিগুণ কিন্তু নেপচুনের চেয়ে ছোট এই গ্রহটি কেবল পৃথিবীর শুরুর অবস্থা নয়, শুক্রগ্রহ এবং মঙ্গলগ্রহেরও প্রথমাবস্থাকে বুঝতে সাহায্য করবে।

বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন ৪১ আলোকবর্ষ দূরে অবস্থান করা ওই গ্রহটি তার সূর্যের খুব কাছ দিয়ে প্রদক্ষিণ করছে। গ্রহটির গায়ে ফুটন্ত লাভার মহাসমুদ্র বিরাজ করছে। এ থেকেই অনুমেয় যে এটি এখন কতটা গরম।

বিজ্ঞানীরা গ্রহটির নাম দিয়েছেন ৫৫ ক্যানক্রি ই। একে জ্যানসেন নামেও ডাকা হচ্ছে। গ্রহটি তার যে সূর্যকে প্রদক্ষিণ করছে তার নাম বিজ্ঞানীরা দিয়েছেন ৫৫ ক্যানক্রি। তার হাত ধরেই এই গ্রহের নাম ৫৫ ক্যানক্রি ই।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *