SciTech

মহাশূন্য থেকে এল উপহার, ৩ মাস পর ছুঁতে পারল নাসা

মহাশূন্যের ওপার থেকে উপহার আনার পর ৩ মাসের অধীর অপেক্ষা। অবশেষে ৩ মাস পর তার নাগাল পেল নাসা।

রহস্যে মোড়া মহাশূন্যের রহস্য উদ্ঘাটনের লড়াই রাতদিন এক করে চালিয়ে যাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। মহাশূন্যে জল ও প্রাণের খোঁজ চলছে নিরন্তর। এই দৌড়ে প্রথমবারের জন্য কোনও গ্রহাণু থেকে সেখানকার মাটির নমুনা পৃথিবীতে আনতে সক্ষম হয়েছে নাসা। বেণু নামে সেই গ্রহাণু থেকে গতবছর সেপ্টেম্বরের শেষের দিকে ওসিরিস-রেক্স যান নমুনা নিয়ে পৃথিবীতে ফিরে আসে।

যার মধ্যে ১২১ গ্রাম পাথর, মাটি, ধুলোর নমুনা ছিল। যা বেণু থেকে আনা। পৃথিবীতে আনার পর তার থেকে ৭০ গ্রাম নমুনা বার করতে সক্ষম হন বিজ্ঞানীরা। কিন্তু বাকিটা ওই বিশেষ পাত্রে থেকে যায়। যা বার করা মুশকিল হচ্ছিল। নষ্ট হওয়ার ভয়ও পাচ্ছিলেন মহাকাশ বিজ্ঞানীরা।


আকর্ষণীয় খবর পড়তে ডাউনলোড করুন নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

গ্রহাণু বেণু থেকে আনা নমুনার বাকিটুকু অবশেষে বার করতে সমর্থ হলেন বিজ্ঞানীরা। জানুয়ারি মাসে এসে সেই কাজ করতে পারলেন তাঁরা। ৩ মাস লাগল বাকি ৫১.২ গ্রামের মত নমুনা ওই বিশেষ আকৃতির পাত্র থেকে বার করে আনতে।

ফলে বেণু থেকে আনা সব নমুনা বার করা গেল। বিজ্ঞানীরা ওই নমুনায় অন্যান্য সবকিছুর সঙ্গে বিশেষ ভাবে জোর দিচ্ছেন কার্বনের উপস্থিতি কতটা তা দেখায়। জল থাকার সম্ভাবনা কতটা তা দেখায়।

যাতে এটা বোঝা যায় যে মহাশূন্যের ওপারে প্রাণের অস্তিত্ব ছিল বা আছে কিনা। বেণুর নমুনা পরীক্ষার পর মহাশূন্যে প্রাণের অস্তিত্ব নিয়ে গবেষণা নতুন উচ্চতা পাবে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞেরা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *