SciTech

এভাবে আর কতদিন, নাসার দেওয়া তথ্যে ভয়ে কাঁপছে বিশ্ব

গত জুলাই মাস নিয়ে নাসা তাদের একটি পরিসংখ্যান প্রকাশ করেছে। যা প্রকাশিত হওয়ার পর কার্যত ভয়ে সিঁটিয়ে গিয়েছে গোটা বিশ্ব।

জুলাই মাস পার করার পর মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা জুলাই মাস নিয়ে একটি পরিসংখ্যান প্রকাশ করেছে। যা সামনে আসার পর কার্যত বিশ্ববাসী আতঙ্কের প্রহর গুনছেন। অনেকেরই প্রশ্ন এভাবে আর কতদিন? আর কটাদিন তাঁরা টিকতে পারবেন এই সাধের পৃথিবীতে! প্রশ্নটা যে অমূলক তাও নয়।

জুলাই মাসে যে গরম গোটা বিশ্ব দেখেছে তা ধারনার বাইরে। কারণ এমন গরম জীবিত কোনও মানুষ কখনও সহ্য করেননি। এমনই অসহ্য গরমে পুড়েছে বিশ্বের বিভিন্ন কোণা।

নাসা তাতেই পরিসংখ্যান দিয়ে ঘৃতাহুতি দিয়েছে। নাসার দাবি, ১৮৮০ সাল থেকে আবহাওয়া সংক্রান্ত যে বছর, মাস বা দিন ধরে পরিসংখ্যান রয়েছে তাতে এমন উষ্ণ জুলাই দেখা যাচ্ছেনা। ২০২৩ সালের জুলাই মাস সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে।

নাসার রেকর্ড বলছে যবে থেকে পরিসংখ্যান রাখা শুরু হয়েছে সে যাবৎকালে জুলাই সবচেয়ে উষ্ণ মাস হিসাবে সামনে এসেছে। ১৯৫১ সাল থেকে ১৯৮০ সালের মধ্যে জুলাই মাসের গরমের যে গড় হিসাব রয়েছে তার তুলনায় ১.১৮ ডিগ্রি বেশি গড় হয়েছে এই জুলাই মাসে।


আবার নাসার রেকর্ডে থাকা জুলাই মাসের যাবতীয় উষ্ণতার গড়ের চেয়ে ২০২৩ সালের জুলাই মাসের গড় উষ্ণতা দশমিক ২৪ শতাংশ বেশি।

কেন এমন ভয় ধরানো উষ্ণ জুলাই? নাসা জানাচ্ছে, চলতি বছরের মে মাস থেকে এল নিনো বা সমুদ্রের উপরিভাগের জলের তাপমাত্রা বৃদ্ধি শুরু হয়। যা জুলাইতে বিশ্বজুড়ে এই অস্বাভাবিক উষ্ণতার কারণ।

নাসা এও জানিয়েছে, পৃথিবী ও মানবসভ্যতাকে রক্ষা করতে হলে অতি দ্রুত বিশ্ব উষ্ণায়নে লাগাম দিতে হবে। নাহলে মানবসভ্যতাকে বাঁচানো যাবেনা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button