SciTech

রয়েছে জল, মহাবিশ্বের আর এক পৃথিবীর দেখা পেয়ে আপ্লুত বিজ্ঞানীরা

মহাবিশ্বে যে কত কিছুই অজানা তা এক একটি আবিষ্কার প্রমাণ করে দেয়। এবার যে আবিষ্কার সামনে এল তা দেখে নিজেদের চোখকে বিশ্বাস করতে পারছেন না আপ্লুত বিজ্ঞানীরা।

কৌতূহল, উত্তেজনা বাঁধ মানছে না বিজ্ঞানীদের। হবে নাই বা কেন! এর আগে তো এমন জলীয় বাষ্পের দেখা মেলেনি এই সৌরমণ্ডলের বাইরে তৈরি হতে চলা এক অন্য পৃথিবীর চারধারে। জল তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি, ক্রমশ একটা জায়গায় পৌঁছচ্ছে পৃথিবীর মত অন্য একটি গ্রহ। যার দেহ জুড়ে পাথর, মাটি ক্রমশ সেজে উঠছে।

৩৭০ আলোকবর্ষ দূরে এই নতুন পৃথিবীর জন্মের কথা, সেখানে জলের অস্তিত্বের কথা, বিজ্ঞানীদের জানান দিল জেমস ওয়েব স্পেস টেলিস্কোপ। এই অতি শক্তিশালী টেলিস্কোপটি এই প্রথম এমন এক ছবি সামনে আনল যা দেখে বিজ্ঞানীদের আনন্দ বাঁধ মানছে না।

পিডিএস ৭০ এমন একটি নক্ষত্র যা সূর্যের চেয়ে ঠান্ডা। এই সূর্যটির আবার একটি ভিতরের গোলক রয়েছে। আর একটি বাইরের গোলক রয়েছে। ২টি গোলকই গ্যাস ও ধূলিকণা দিয়ে তৈরি।

ভিতরের দিকের যে গোলকটি রয়েছে তাতে জলের অস্তিত্ব স্পষ্ট। যা ওই নক্ষত্রের ১৬০ মিলিয়ন কিলোমিটার দূরত্বে রয়েছে। এখানেই তৈরি হচ্ছে একটি পাথুরে স্থলভূমি। যা হুবহু পৃথিবীর সঙ্গে তুলনীয় হতে পারে।


পৃথিবীর মতই এখানে জলের অস্তিত্ব রয়েছে। ফলে সেখানে আগামী দিনে প্রাণের অস্তিত্ব দেখা গেলে অবাক হওয়ার কিছু নেই। এভাবে চোখের সামনে মহাবিশ্বে অন্য একটি পৃথিবী তৈরি হতে দেখা বিজ্ঞানীদের কাছে এক বড় পাওনা।

বিজ্ঞানীদের মনে হচ্ছে এই আবিষ্কার ও এই নতুন তৈরি হতে চলা পৃথিবী সম্বন্ধে আরও জ্ঞান বৃদ্ধি মহাবিশ্ব সম্বন্ধে ধারনাও অনেকটা বদলে দিতে পারে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button