National

মঙ্গলের সকালে জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী

দেশব্যাপী কী হবে? সেই উত্তর দিতেই কী মঙ্গলবার ফের জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দিতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী? প্রশ্ন সেটাই।

গত ২৪ মার্চ রাতে জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দেশবাসীকে ২১ দিন ঘরে থাকার ডাক দিয়েছিলেন। করোনাকে রুখতে দেশবাসীর কাছে এই সময়টুকু চেয়ে নিয়েছিলেন তিনি। সেই ২১ দিনের গৃহবন্দি থাকার ডাকে সাড়া দিয়েছেন দেশবাসী। ঘরেই ছিলেন তাঁরা। সেই ২১ দিনের ২১ তম দিনটি হল মঙ্গলবার। বাংলার নববর্ষের দিন। বাংলার নতুন বছরের শুরুতেই শেষ হচ্ছে ২১ দিনের দেশব্যাপী লকডাউন। এখন প্রশ্ন হল এবার কী?

ইতিমধ্যেই দেশের বেশ কিছু রাজ্যের সরকার তাদের রাজ্যে লকডাউনের সময়সীমা বাড়িয়ে ৩০ এপ্রিল করেছে। যারমধ্যে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ, মহারাষ্ট্র, পঞ্জাব, ওড়িশা, তামিলনাড়ু-র মত রাজ্যগুলি। কিন্তু দেশব্যাপী কী হবে? সেই উত্তর দিতেই কী মঙ্গলবার ফের জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দিতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী? প্রশ্ন সেটাই। তবে উত্তরও হয়তো তাই যে লকডাউন নিয়ে কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত জানাতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী। মঙ্গলবার সকাল ১০টায় জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানেই সব উত্তর মিলবে।

লকডাউন বেড়ে যাওয়ার চিন্তা যেমন মানুষের রয়েছে। তেমনই আবার করোনাকে রুখতে দাঁতে দাঁত চেপে তা মেনেও নিচ্ছেন অনেকে। সমস্যা অন্যত্র। যাঁরা তথাকথিত দরিদ্র শ্রেণি। যাঁদের স্থায়ী রোজগার নয়, কাজ করলে উপার্জনের ওপর জীবন নির্বাহ করতে হয়। তাঁদের অবস্থা দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে।

যদিও কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের তরফে বেঁচে থাকার মত খাবার তাঁদের ঘরে পৌঁছে দেওয়ার বন্দোবস্ত হয়েছে। অর্থ ব্যয় না করেই তা পাচ্ছেন তাঁরা। কিন্তু হাতে পয়সা নেই। সে চিন্তা তাঁদের কুড়ে কুড়ে খাচ্ছে। ভবিষ্যৎ নিয়ে দুশ্চিন্তা ক্রমশ তাঁদের যেন গিলে খাচ্ছে। করোনা রোখার লড়াইয়ের পাশাপাশি বাস্তবের সঙ্গেও কঠিন লড়াই লড়তে হচ্ছে তাঁদের। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button