Entertainment

হয়রানি ও প্রতারণার জেরেই আত্মঘাতী জনপ্রিয় অভিনেত্রী

লাগাতার তাঁকে হয়রানির শিকার হতে হত। প্রতারণা সহ্যের সীমা ছাড়িয়েছিল। বয়ফ্রেন্ডের কাছ থেকে এভাবে দিনের পর দিন অত্যাচার সহ্য করতে না পেরেই আত্মঘাতী হন তেলেগু টেলিভিশনের জনপ্রিয় অভিনেত্রী নাগা ঝাঁসি। তদন্তে নেমে এমনই জানাল পুলিশ। তাঁকে দিনের পর দিন প্রতারণা ও হয়রানির অভিযোগে নাগা ঝাঁসির বয়ফ্রেন্ড সূর্য তেজাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাকে আদালতে পেশ করা হলে আদালত তাকে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেয়। ২১ বছরের নাগা ঝাঁসি খুব অল্প সময়ের মধ্যেই তেলেগু ছোট পর্দার জনপ্রিয় মুখ হয়ে উঠেছিলেন।

Arrest
প্রতীকী ছবি

গত ৫ ফেব্রুয়ারি ২১ বছর বয়সী নাগা ঝাঁসির দেহ উদ্ধার হয় তাঁর ফ্ল্যাট থেকে। সিলিং ফ্যান থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় তাঁর দেহ উদ্ধার করা হয়। প্রতিবেশিদের সঙ্গে দরজা ভেঙে ঢুকে বোনকে এই অবস্থায় দেখতে পান তাঁর দাদা দুর্গা প্রসাদ। তেলেগু টেলিভিশনের জনপ্রিয় মুখ ছিলেন অভিনেত্রী নাগা ঝাঁসি। এত কম বয়সের মধ্যেই সাফল্য ছুঁয়েছিলেন নাগা। তাঁর প্রায় প্রতিটি সিরিয়ালই জনপ্রিয়তার নিরিখে প্রথমসারিতে রয়েছে।

Sadness
প্রতীকী ছবি

মৃতা অভিনেত্রীর পরিবারের তরফে জানানো হয়, নাগা ঝাঁসির তাঁর এক দূর সম্পর্কের আত্মীয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। তাঁর প্রেমিক তাঁকে বিয়ে করতেও চেয়েছিল। এজন্য কিছুদিন অভিনয় জগত থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়ে সংসার করার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন নাগা। হালে সূর্য তেজা নামে ওই যুবক মত বদলায়। সে নাগাকে অভিনয় চালিয়ে যেতে বলে।

যদিও বিগত বেশ কিছুদিন ধরেই নাগা ঝাঁসি মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন। তাঁর প্রেমের সম্পর্ক নিয়ে টানাপোড়েনই এর কারণ বলে মনে করছে তাঁর পরিবার। সেই অবসাদ থেকেই তিনি আত্মঘাতী হয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছিল। অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীনগর কলোনিতে যে ফ্ল্যাটে তিনি থাকতেন ফোনে না পেয়ে সেখানে হাজির হন তাঁর দাদা। তারপর দরজা না খোলায় প্রতিবেশিদের নিয়ে দরজা ভেঙে বোনকে ঝুলন্ত অবস্থায় পান তিনি।

Arrest
প্রতীকী ছবি

পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করে। নাগা ঝাঁসি যেমন অভিনয় জীবনে অল্প সময়ে সাফল্য পেয়েছিলেন, তেমনই তিনি ছিলেন ভাল বিউটিশিয়ান। অন্ধ্রপ্রদেশের কৃষ্ণা জেলার বাসিন্দা নাগা ঝাঁসির নিজের একটি বিউটি পার্লারও রয়েছে। কিন্তু তাঁর সফল জীবনে সূর্য তেজার প্রবেশই কাল হল বলে নমনে করছেন তাঁর ঘনিষ্ঠরা।

(সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা)

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button