National

নাগাড়ে বৃষ্টিতে সপ্তাহের শুরুতেই জলের তলায় শহর, স্তব্ধ জনজীবন

ট্রেন বন্ধ, বিমান অধিকাংশই বাতিল, বাস প্রায় চলছে না, রাস্তায় গাড়ি পাওয়া যাচ্ছেনা। শহরের ব্যস্ততম রাস্তাগুলো জলের তলায় হারিয়ে গেছে। সপ্তাহের শুরুতেই স্তব্ধ শহর।

শহর স্তব্ধ করে দেওয়া বৃষ্টি বছরে ২-৩ দিনই হয়। এ শহর তা জানেও। প্রতিবছরই এমন দিন স্তব্ধ করে দেয় জনজীবন। এবারও তাই হল। স্তব্ধ হয়ে গেল মায়ানগরীর জনজীবন।

মুম্বই ভারতের অন্যতম ব্যস্ত শহর। তার ওপর সপ্তাহের প্রথম দিন। কিন্তু রাত ১টা থেকে সেই যে বৃষ্টি শুরু হয় তা সকাল ৭টা পর্যন্ত কার্যত থামার নাম নেয়নি। মুষলধারে বৃষ্টি রাতটা স্বস্তি দিলেও ভোর হতেই সকলের চিন্তার ভাঁজ পুরু হয়।

এ শহরের হালহকিকত শহরবাসীর জানা। সকাল হতেই দেখা গেল গোটা শহরটা জলের তলায় হারিয়ে গেছে। ৫০টির ওপর বিমান বাতিল করা হয়েছে। অন্যান্য বিমানও কখন ছাড়বে সে বিষয়ে নিশ্চিত না হলে মানুষকে বাড়ি থেকে বার হতে নিষেধ করেছে বিমান সংস্থাগুলি।

এদিকে মুম্বই শহরটার লাইফলাইন বলা হয় সেখানকার লোকাল ট্রেনকে। সেই লোকাল ট্রেনও অধিকাংশ জায়গায় স্তব্ধ হয়ে যায়। অনেক জায়গায় জলের তলায় চলে গেছে ট্রেন লাইন।


কিছু ট্রেন অবশ্য ওই জলের ওপর দিয়েই যাতায়াত করার চেষ্টা করেছে। বেস্টের বাসও বড় একটা চোখে পড়েনি। স্কুলে ছুটি ঘোষণা করা হয়। শহরের অধিকাংশ জায়গায় কোমরজল থাকায় গাড়ি নিয়ে রাস্তায় বার হওয়া যায়নি।

শহর প্রশাসনের তরফে জানানো হয় যদি বৃষ্টি ঘণ্টা ২-৩-এর জন্যও থামে তাহলেও জল নেমে যাবে। কিন্তু বৃষ্টি বড় একটা থামেনি। বরং ভারী বৃষ্টিরই পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

সোমবার হলেও অধিকাংশ মুম্বইবাসীই পূর্বতন অভিজ্ঞতাকে মাথায় রেখে বাড়ি থেকে বার হননি। যাঁরা বার হয়েছিলেন তাঁরা গন্তব্যে পৌঁছতে সমস্যায় পড়েন।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button