Entertainment

তিনি বাথরুমের দরজা বন্ধ করেননা, অকপটে জানালেন অভিনেত্রী

বাথরুমে যখনই কেউ যান তখন তিনি বাথরুমের দরজা বন্ধ করে নেন। মহিলারা তো অবশ্যই করেন। কিন্তু তিনি করেননা। কেন তাও জানালেন অভিনেত্রী।

স্নান হোক বা টয়লেট ব্যবহার, বাথরুমে ঢুকে দরজা বন্ধ করে দেন সকলেই। মহিলাদের ক্ষেত্রে তাঁরা তো ভুলেও কখনও দরজা খোলা রাখেন না। ভুলে খোলা থাকলে তা তাঁদের জন্য অত্যন্ত লজ্জার কারণ হয়।

পুরুষরাও বাথরুম ব্যবহারের সময় দরজা বন্ধ করে নেন। বাথরুমে থাকার সময়টা নেহাতই মানুষের ব্যক্তিগত হয়। কিন্তু এক ডাকসাইটে অভিনেত্রী জানালেন তিনি বাথরুমে স্নানেই যান বা টয়লেটে, দরজা কখনও বন্ধ করেননা।

দরজা হাট করে খুলেই রেখে যান। স্বামী ও ২ সন্তানকে নিয়ে তাঁর সংসার। বাড়িতে তিনি বাথরুমে থাকলে দরজা সবসময় খোলা থাকে। যে কেউ বাথরুমে কি হচ্ছে তা দেখতে পান।

হলিউড অভিনেত্রী মিলা কিউনিস জানালেন, তিনিও ছোট থেকে বড় হয়ে ওঠার মধ্যে কখনও ভাবতে পারেননি তিনি বাথরুমের দরাজ খুলে বাথরুম ব্যবহার করবেন। বিয়ের পরেও না।

কিন্তু সন্তানদের জন্মের পর তিনি এবং তাঁর স্বামী বাড়ির কিছু নিয়ম স্থির করেছেন। যার মধ্যে একটি হল বাথরুম সবসময় খুলে রাখা।

তাঁদের ২ সন্তান এতটাই দুরন্ত যে তাদের সামাল দেওয়া প্রায় অসম্ভব। তিনি এবং তাঁর স্বামী ২ জনই অভিনেতা অভিনেত্রী। তাঁরা কখনও একসঙ্গে কাজে যান না। একজন বাড়িতে থাকেনই।

আর তিনিও যদি বাথরুমের দরজা বন্ধ রাখেন তাহলে বাড়িতে তাঁদের ৫ ও ৭ বছরের সন্তান কি কাণ্ড করবে তা কারও জানানেই। তাই স্থির হয়েছে সবসময়ই বাথরুমের দরজা খোলা থাকবে। মিলা ও অ্যাস্টন কাচারের বাড়ি নিউ ইয়র্কে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button