World

গাছে চড়ে, বনজঙ্গলে ঘুরেও গোটা এলাকা তার দেখা পেল না

কোথায় বাকি রেখেছে খুঁজতে। গোটা এলাকার মানুষ লেগে পড়েছেন। তাতেও তার নাগাল পাওয়া গেলনা। এমনই চতুর সে। তাকে খুঁজতে গাছেও চড়ে পড়েন অনেকে।

স্কুলে যাচ্ছিল এক ছাত্র। পথে তার সামনে যে এসে পড়ে তাকে দেখে প্রাথমিক হতবাক অবস্থা কাটিয়ে সেই ছাত্র তাকে পাকড়াও করে নিয়ে যায় স্কুলেই। কিন্তু স্কুল থেকে সে পালিয়ে যায়।

সে যে সকলের চোখ এড়িয়ে পালাতে সিদ্ধহস্ত তা বুঝতে এখন বিশেষজ্ঞের দরকার নেই। গোটা এলাকার মানুষের কাছেই তা পরিস্কার। কারণ সেই যে সে স্কুল থেকে পালিয়েছে, তারপর থেকে তার আর দেখা নেই।

কোথায় লুকোলো? অগত্যা তাকে উদ্ধার করতে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিস্তারিত জানিয়ে এলাকার সাধারণ মানুষের সাহায্য চেয়েছেন বন দফতরের আধিকারিকরা। বিষয়টি জানতে পেরে এলাকার মানুষও তৎপরতার সঙ্গে বেড়িয়ে পড়েছেন।

চেষ্টা করছেন খুঁজে পেতে। কিন্তু সে ময়ূরের দেখা নেই। জনবসতির পাশে একটি ছোট জঙ্গলও রয়েছে। অনুমান সেখানে সে গা ঢাকা দিয়ে থাকতে পারে।


সেই জঙ্গলেও তন্ন তন্ন করে খুঁজে ফেলেছেন বন দফতরের আধিকারিক থেকে স্থানীয় বাসিন্দারা। এমনকি খোঁজার উৎসাহে অনেকে গাছেও চড়ে যান। যাতে উপর থেকে দেখতে সুবিধা হয়।

কিন্তু কোথায় কি? ২ দিন পার করেও তার টিকিটি কেউ দেখতে পাননি। বন দফতরেরও স্থির বিশ্বাস সে ওই জঙ্গলেই লুকিয়ে আছে। কিন্তু ময়ূর তো আর ছোটখাটো কোনও পাখি নয়। তাও তার দেখা মিলছে না।

হাল অবশ্যই ছাড়েননি মিশিগানের স্যাগিনা শহরের বাসিন্দারা। তাঁরা কোমর বেঁধে ময়ূরটিকে খুঁজে পেতে সবরকম চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button