Kolkata

এবার আরও কড়া হতে বাধ্য হবে সরকার, সাফ জানালেন মুখ্যমন্ত্রী

রাজ্যের করোনা গ্রাফ হুহু করে চড়ছে। এই পরিস্থিতিতেও অনেক মানুষের মধ্যে ঢিলেঢালা মানসিকতা দেখা যাচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী এদিন কিন্তু সকলের জন্য স্পষ্ট বার্তা দিয়ে দিলেন।

রাজ্যে হুহু করে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। বৃহস্পতিবার তা একদিনে ১৫ হাজারের গণ্ডি পার করে গেল। সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ধরা পড়েছে কলকাতায়। পিছনে রয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা। তবে এই ২ জেলা বলেই নয়, রাজ্যের প্রায় সব জেলাতেই করোনা গ্রাফ উর্ধ্বমুখী।

এই অবস্থায় বেশ কিছু বিধিনিষেধ ইতিমধ্যেই জারি করেছে রাজ্যসরকার। বৃহস্পতিবার এক সাংবাদিক সম্মেলনে তা আরও কঠোর করা হতে পারে বলে ইঙ্গিত দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন তিনি সাফ জানান, মানুষ এখনও যদি সতর্ক না হন তাহলে রাজ্যসরকার আগামী দিনে আরও কড়া নিয়ম বলবত করতে বাধ্য হবে। সকলের পরিস্থিতি বোঝা উচিত বলেও জানান তিনি।

প্রসঙ্গত করোনার এই বাড়বাড়ন্তের দিনেও রাস্তায় ভিড়ের অন্ত নেই। দূরত্ববিধি শিকেয়। অনেকেই মুখে মাস্কটা পর্যন্ত ঠিক করে দিচ্ছেন না। জ্বর নিয়ে বা বাড়িতে করোনা রোগী থাকা সত্ত্বেও অনেকে রাস্তায় ঘুরছেন।

অনেকের দাবি বাড়িতে কারও হয়েছে, তিনি তো নেগেটিভ, তাহলে তাঁর ঘুরতে আপত্তি কোথায়! চিকিৎসকেরা কিন্তু বারবার বলছেন বাড়িতে কারও করোনা হয়ে থাকলে বাড়ির সকলকেই একটা নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত বাড়িতেই নিভৃতে থাকতে হবে।

মুখ্যমন্ত্রী এদিন বলেন, বিধাননগরের কমিশনার থেকে বহু পুলিশকর্মী করোনা সংক্রমণের শিকার হয়েছেন। পরিস্থিতিকে হাল্কাভাবে নেওয়ার অবস্থা নেই।

পুলিশকে যে তিনি কড়া হতে নির্দেশ দিয়েছেন তাও জানিয়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রসঙ্গত বেশ কিছু জায়গায় মাস্ক না পরে রাস্তায় বার হওয়ায় অনেককে আটক করেছে পুলিশ।

কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগনায় কন্টেনমেন্ট জোন বাড়ানো হতে পারে বলেও জানিয়ে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠকও করবেন মুখ্যমন্ত্রী।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.