State

কুম্ভমেলা সুয়োরানি আর গঙ্গাসাগর কি দুয়োরানি, কপিলমুনির আশ্রম থেকে তোপ মমতার

গঙ্গাসাগর মেলা শুরুর প্রাক্কালে সব ব্যবস্থা খতিয়ে দেখতে গঙ্গাসাগরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে কপিল মুনির আশ্রমের সামনে থেকে কেন্দ্রকে তোপ দাগলেন মুখ্যমন্ত্রী।

গঙ্গাসাগর মেলা এবার অনুষ্ঠিত হতে চলেছে পয়লা জানুয়ারি থেকে ১৬ জানুয়ারি পর্যন্ত। মকর স্নান হবে ১৪ জানুয়ারি। পুরো বন্দোবস্ত খতিয়ে দেখতে ৩ দিনের সফরে গঙ্গাসাগরে এদিন হাজির হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

প্রথমেই তিনি কপিল মুনির আশ্রমে গিয়ে সেখানে পুজো দেন। তারপর মন্দিরের মহন্তের সঙ্গেই বাইরে বেরিয়ে আসেন। সেখানে তখন সাংবাদিকরা অপেক্ষায় ছিলেন।

মুখ্যমন্ত্রী এদিন সাফ জানান, কুম্ভমেলার জন্য কেন্দ্র দরাজ হস্তে টাকা ঢালছে। কিন্তু দেশের অন্যতম প্রধান মেলা গঙ্গাসাগরে এক টাকাও কেন্দ্র দিচ্ছেনা। গঙ্গাসাগর মেলার আয়োজন রাজ্যসরকার করছে। মুখ্যমন্ত্রীর কটাক্ষ, কুম্ভমেলা যদি সুয়োরানি হয় তাহলে গঙ্গাসাগর কি দুয়োরানি।

গঙ্গাসাগরকে জাতীয় মেলা ঘোষণা করার আর্জিও দীর্ঘদিন ধরে মুখ্যমন্ত্রী করে আসছেন। তিনি এদিনও বলেন গঙ্গাসাগরকে জাতীয় মেলা ঘোষণা করার জন্য তিনি কেন্দ্রকে চিঠি দিলেও তার কোনও উত্তর নেই।

গঙ্গাসাগর মেলাকে অনেকটাই সাজিয়ে তুলেছে তাঁর সরকার বলে আগেও জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এবার গঙ্গাসাগরে করোনাবিধিকে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে।

করোনা পরিস্থিতির আগে গঙ্গাসাগরে প্রতিবছর প্রায় ৪০ লক্ষ মানুষের সমাগম হত। এবার যাঁরাই আসবেন তাঁদের করোনাবিধি মানতে হবে।

মুখ্যমন্ত্রী এদিন জেলার প্রশাসনিক আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন। গঙ্গাসাগরে একটি হাসপাতালও তৈরি রাখা হচ্ছে। যেখানে প্রায় ২ হাজার মানুষের চিকিৎসার বন্দোবস্ত থাকবে। ওই হাসপাতালে থাকবে আইসোলেশন ওয়ার্ডও।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.