National

দোলের সকালে মহাকালেশ্বর মন্দিরের গর্ভগৃহে আগুন

দোলের সকাল মানেই মন্দিরে মন্দিরে বিশেষ পুজোর ব্যবস্থা। মহাকালেশ্বর মন্দিরেও সকালে আরতি হচ্ছিল। সেই সময় গর্ভগৃহে আগুন ছড়িয়ে পড়ে।

দোলের সকালে মধ্যপ্রদেশের উজ্জয়িনীর মহাকালেশ্বর মন্দিরে পুজো চলছিল। পুজো উপলক্ষে ভক্তের ঢল নেমেছিল। আরতি চলায় তখন গর্ভগৃহে পুরোহিতরা তো ছিলেনই, সেই সঙ্গে ভক্তরাও উপস্থিত ছিলেন। চলছিল ভস্ম আরতি। সেই সময় হোলি উপলক্ষে আবির ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছিল গর্ভগৃহে।

হাওয়ায় উড়ছিল আবির। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে এই আবির বা ফাগ আরতির আগুনের সংস্পর্শে এসেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে গর্ভগৃহে।

প্রত্যক্ষদর্শীরাও তেমনই জানিয়েছেন। গর্ভগৃহ কালো ধোঁয়ায় ছেয়ে যায়। দ্রুত সেই আগুন ১৪ জন পুরোহিতের শরীর স্পর্শ করে। তাঁদের গায়ে আগুন লেগে যায়।

মহাকালেশ্বর মন্দিরে আগুন দেখে ছোটাছুটি শুরু হয়ে যায়। দ্রুত আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা শুরু হয়। ভক্তদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। শুভ দিনের সকালে উৎসবের আনন্দ দ্রুত বদলে যায় আতঙ্কের আবহে।


আহত ১৪ জন পুরোহিতকে সেখান থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। আগুন নিয়ন্ত্রণেও এনে ফেলা হয় দ্রুত। ঘটনার ম্যাজিস্ট্রেট পর্যায়ে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কীভাবে ঘটনা ঘটল তা প্রত্যক্ষদর্শীদের বয়ান নিয়ে জানার চেষ্টা চলছে।

দোল উপলক্ষে বহু মন্দিরেই এদিন সকাল থেকে ভক্তের ঢল নেমেছে। অনেকেই এই পুণ্য তিথিতে দেবতার সঙ্গে রংয়ের উৎসবে মেতে উঠতে মন্দিরে হাজির হন। পুজো দেন। ফাগ ছড়িয়ে দেন। মহাকালেশ্বর মন্দিরেও তেমনই ভিড় জমেছিল। সেখানে এমন একটা ঘটনা ভক্তদের মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি করল।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button