Lifestyle

খুলে গেল সমুদ্র শহরের সব বিচ

সমুদ্র পর্যটন সারা বিশ্বেই অবসরের এক অন্যতম আকর্ষণ। লকডাউনে তা থেকে অনেক দূরে এখন মানুষ। তবে আস্তে আস্তে খুলে যাচ্ছে সমুদ্রতীরের আনন্দ।

লস অ্যাঞ্জেলস : লকডাউন চলছে। করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়েই চলেছে। এদিকে সময়ও পার হয়ে যাচ্ছে। মানুষ বাড়িতে থাকতে থাকতে অধৈর্য হয়ে পড়ছেন। শারীরিক সমস্যা দেখা দিচ্ছে। এই পরিস্থিতির মধ্যেই এবার খুলে গেল লস অ্যাঞ্জেলসের সব বিচ বা সমুদ্রসৈকত।

লস অ্যাঞ্জেলসে মোট ২০টি সমুদ্র সৈকত পর্যটকদের জন্য রয়েছে। এর সবকটি খুলে দিয়েছে সেখানকার প্রশাসন। তবে কিছু বিধিনিষেধও থাকছে। যদিও আমেরিকার করোনা পরিস্থিতি বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে শোচনীয়।

লস অ্যাঞ্জেলসের বিচগুলিতে স্নানে কোনও বাধা নেই। তবে দূরত্ব কমপক্ষে ১.৮ মিটার রাখতে হবে। জলের বাইরে যতক্ষণ থাকবেন ততক্ষণ মুখে মাস্ক থাকতে হবে। সমুদ্রে স্নান করা, সার্ফিং করা, সমুদ্রের ধার ধরে ছোটা বা হাঁটায় কোনও বাধা নেই। তবে বালিতে বসে থাকা বা শুয়ে থাকা নিষিদ্ধ।

এখানকার বিচগুলিতে বালির ওপর শুয়ে থাকা বা বসে থাকা, রোদ পোহানো, রৌদ্র স্নান করা, এসব অন্যতম আকর্ষণ। কিন্তু সেটা এখন মানা। শরীরকে সচল রাখার রাস্তা খুলতেই শর্তসাপেক্ষে বিচগুলি খোলা হয়েছে বলে জানিয়েছে প্রশাসন।

যদিও বাড়িতেই থাকার নিয়ম এখনও লস অ্যাঞ্জেলস থেকে উঠে যায়নি। তবু কিছুটা কিছুটা করে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার চেষ্টা চালাচ্ছে প্রশাসন। তবে সমুদ্র সৈকতে ভলিবল খেলা, বিচ ভলিবল, পার্কিং লট, বোর্ড ওয়াকিং-এর মত খেলাগুলি বন্ধ করা হয়েছে।

লস অ্যাঞ্জেলসের সবকটি বিচ গত ২৭ মার্চ থেকে বন্ধ করা হয়েছিল। তারপর থেকে বিচে মানুষের দেখা মেলেনি। অবশেষে একটু একটু করে মানুষ ফিরছেন বিচে। তবে সব শর্ত মেনে, কড়া নজরদারিতে সেখানে কাটাতে হচ্ছে তাঁদের। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button