Lifestyle

প্রেমের সম্পর্ককে দীর্ঘস্থায়ী করার মন্ত্র দিলেন গবেষকেরা

সম্পর্ক তৈরি করার চেয়ে টেকানোটা অনেক বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। কত বদল তাঁরা জীবনে করবেন, এটাও বড় প্রশ্ন হয়ে তাঁদের সামনে এসে পড়ে।

আধুনিক প্রজন্মের ছেলেমেয়েরা নাকি যত তাড়াতাড়ি প্রেমে পড়েন, তার চেয়ে বেশি তাড়াতাড়ি তাঁদের ব্রেক আপ হয়। এমনকি তা কলেজ জীবনের প্রেমের গণ্ডী পার করে বিবাহিত জীবনেও দেখা যাচ্ছে। যার জেরে ডিভোর্স বেড়েছে।

সম্পর্ক তৈরি করার চেয়ে টেকানোটা অনেক বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই পরিস্থিতিতে ব্রেক আপ হলে বা ডিভোর্স হলে কেউই কিন্তু খুব ভাল থাকতে পারেননা।

এভাবে কত বদল তাঁরা জীবনে করবেন? এটাও বড় প্রশ্ন হয়ে তাঁদের সামনে এসে পড়ে। অনেকে একাকীত্বকেই সঙ্গী হিসাবে বেছে নেন। যা আখেরে তাঁদের শান্তি দিতে পারেনা।

এই সমস্যার কথা মাথায় রেখেই ব্রিটেনের সোয়ানসি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকেরা একটি গবেষণাপত্র প্রকাশ করেছেন। যেখানে তাঁরা সম্পর্ককে দীর্ঘস্থায়ী করার জন্য কিছু পরামর্শ দিয়েছেন।

তাঁরা বলছেন, শারীরিক আকর্ষণ ও আর্থিক সচ্ছলতা যেমন একটি সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার জন্য জরুরি, তেমনই দরকার উদারতা। এই উদারতাকে খুব বড় করে সামনে এনেছেন গবেষকেরা।

তাঁদের দাবি, একের অপরের প্রতি উদারতা, সহৃদয়তার মানসিকতা থাকলে সম্পর্ক কিন্তু টিকবে। পারস্পরিক এই বিশ্বাস থাকতে হবে। এই গবেষণার জন্য বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের ২ হাজার ৭০০ কলেজ ছাত্রছাত্রীকে নিয়েছিলেন গবেষকেরা।

২ হাজার ৭০০ ছাত্রছাত্রীদের আলাদা করা হয় এশীয় ও ইউরোপীয় ভিত্তিতে। তারপর তাদের ডেটিংয়ের সুযোগ দেওয়া হয়। এতে ২টি আলাদা সংস্কৃতির মানুষ নিজেদের মধ্যে সম্পর্ক তৈরি করেন।

দেখা যায় এঁরা সম্পর্ক টেকাতে উদারতাকে গুরুত্ব দিচ্ছেন সবচেয়ে বেশি। এর বাইরে অবশ্যই দৈহিক আকর্ষণ ও আর্থিক সচ্ছলতাকে গুরুত্ব দেন তাঁরা। তারপর অন্য কিছু। এখান থেকেই একটা সিদ্ধান্তে উপনীত হন গবেষকেরা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.