Lifestyle

বিশেষ দেওয়াল ভেঙে ধাঁধার উত্তর দিতে হয় বরকে, তবেই হয় বিয়ে

বিয়েতে নানাধরনের আচার অনুষ্ঠান থাকে। এদেশেই এমন এক জায়গা রয়েছে যেখানে বরকে ধাঁধা জিজ্ঞেস করেন কনের বাড়ির লোকজন। একটা বিশেষ দেওয়ালও ভাঙতে হয় বরকে।

বিয়ে করতে এসে বরের জুতো চুরি বা শ্যালক, শ্যালিকাদের টাকা চাওয়া ভারতের নানা প্রান্তেই বেশ প্রচলিত মজা। যা বিয়ের সময় বরের সঙ্গে হয়ে থাকে। আর এজন্য প্রস্তুত হয়েই যান বর। জানেন বেশ কিছু টাকা তাঁর খসবে। কিন্তু এমনও নানা মজার প্রথা বিয়ের সঙ্গে জড়িয়ে আছে যা মানুষকে অবাক করে।

যেমন ভারতের এক অংশে বিয়েতে বরকে বেশ কঠিন পরীক্ষা দিয়ে তবে বিয়েতে বসার সুযোগ করে নিতে হয়। কনের বাড়িতে পৌঁছনোর পর বিয়েতে বসার আগে বরকে কনের বাড়ি থেকে আসা ধাঁধার সম্মুখীন হতে হয়।


আকর্ষণীয় খবর পড়তে ডাউনলোড করুন নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

তাঁকে ধাঁধা জিজ্ঞেস করতে থাকেন কনের ভাই, বোনেরা। তার উত্তর বরকে দিতে হয়। এখানেই শেষ নয়, এবার রয়েছে দেওয়াল।

এ দেওয়াল অবশ্য ইট, সিমেন্টের দেওয়াল নয়। নিছকই মানব প্রাচীর। মানে এখানেও বিয়েতে উপস্থিত তরুণ তরুণীদের দল একযোগে একটি দেওয়াল তৈরি করেন। যা ভেঙে বরকে বিয়ে করতে প্রবেশ করতে হয়।

অবশ্যই পুরোটা মজার অঙ্গ। বিয়েকে আরও রঙিন, আরও মজাদার, আরও আনন্দের করে রাখতেই এই ধাঁধা বা মানব প্রাচীরের আয়োজন। তবে এর সামনে কিন্তু প্রত্যেক বরকেই পড়তে হয় অসমের এক অংশে।

এটা অসমে বহু প্রাচীন সময় থেকেই প্রচলিত। তবে শুধু ধাঁধা বা মানব প্রাচীরের মূল লক্ষ্য হল এটা যাচাই করা যে বর তাঁর হবু স্ত্রীকে কতটা ভালবাসেন তার পরীক্ষা নেওয়া।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *