Lifestyle

আম জলে ভিজিয়ে খাওয়া উচিত, নাকি না ভিজিয়ে, কোনটা ঠিক

এখন আমের সময় চলছে। ফলে প্রতি পরিবারই আমে মশগুল। আম অনেকে জলে ভিজিয়ে রেখে খান। আবার অনেকে একবার ধুয়ে কেটে ফেলেন। কোনটা ঠিক।

আমের সময় আমে রসনা তৃপ্তি হবেনা, এমনটা হয় নাকি! অনেক পরিবারে তো দৈনিক আমদরবার বসে যাচ্ছে! সকলে মিলে চলছে আম খাওয়া।

বাজার থেকে আম কেনার পর তা বাড়ি এনে অনেকে খাওয়ার আগে আমগুলো কিছুক্ষণ জলে ভিজিয়ে রাখেন। বহুকাল ধরে এমনভাবে আম ভিজিয়ে রাখার প্রবণতা নজরে পড়ে।

আর কিছু মানুষ আছেন যাঁরা ভিজিয়ে না রেখে স্রেফ ধুয়ে আম কেটে ফেলেন খাওয়ার জন্য। কিন্তু কোনটা সঠিক পদ্ধতি? আম খাওয়ার আগে তা বেশ কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রাখা, নাকি একবার ভাল করে ধুয়ে কেটে ফেলা?

আমের মধ্যে পলিফেনল, ট্যানিন, ফাইটিক অ্যাসিড থাকে। ফাইটিক অ্যাসিড আবার শরীরে প্রবেশ করলে শরীরের তাপমাত্রা বাড়িয়ে দেয়। আম জলে ভিজিয়ে রাখলে এই ফাইটিক অ্যাসিড অনেকটাই ধুয়ে বেরিয়ে যায়।


আবার পলিফেনল বা ট্যানিন জাতীয় উপাদান চুলকানির মত সমস্যা তৈরি করে। তাই এগুলিও আম জলে ঘণ্টা তিনেক ভেজানো থাকলে ধুয়ে যায়।

এছাড়া আমের গায়ে লেগে থাকা কীটনাশক, ধুলো ময়লা, মাটি সবই জলে ভেজানো থাকায় জলের সঙ্গে মিশে আমকে এগুলি থেকে মুক্ত করে। ঘণ্টা তিনেক আম তাই ভিজিয়ে রেখে তারপর খাওয়াটাই সবচেয়ে ভাল বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞেরা।

এতে আমের খারাপ প্রভাব ধুয়ে যায়। যা পড়ে থাকে তা সবটাই উপকারি। কারণ আম ভুবন ভোলানো স্বাদের জন্য বিখ্যাত হলেও তা শরীরের পক্ষেও দারুণ উপকারি। আম শরীরের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়, বাড়ায় হজম শক্তিও। এতে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডান্ট থাকে।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button