Monday , May 28 2018
গত শুক্রবার বাড়ি ভাড়া নিয়ে ঠাকুরপুকুরের বাড়িতে উঠে এসেছিলেন বাবা, মা ও তাঁদের ৩ মেয়ে। ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই নতুন ভাড়া ঘর থেকে উদ্ধার হল মহিলার দেহ।

নতুন ভাড়া ঘরে গৃহবধূর রহস্যমৃত্যু

গত শুক্রবার বাড়ি ভাড়া নিয়ে ঠাকুরপুকুরের মণ্ডলপাড়ার বাড়িতে উঠে এসেছিলেন বাবা, মা ও তাঁদের ৩ মেয়ে। আর ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই নতুন ভাড়া ঘর থেকে উদ্ধার হল মহিলার দেহ। মহিলার এই রহস্য মৃত্যুর কারণ এখনও পরিস্কার নয় পুলিশের কাছে। তবে তাঁর দেহে কোনও আঘাতের চিহ্ন বা শ্বাসরোধ করে খুনের চেষ্টার প্রমাণ মেলেনি বলেই জানিয়েছে পুলিশ। গত শুক্রবার এখানে উঠে আসার পর শনিবার সকালে ওই মহিলার স্বামী ও বড় মেয়ে কাজে বেরিয়ে যান। বেলা সাড়ে ১২টা নাগাদ ঘর থেকে ২ মেয়ের কান্নার আওয়াজ শুনতে পান প্রতিবেশিরা। পরে প্রতিবেশিরাই পুলিশে খবর দেন। এদিকে বাড়ি ভাড়া দিলেও এই পরিবারের কাছ থেকে বাড়িওয়ালা কোনও কাগজপত্র নেননি। পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।

 



About News Desk

Check Also

Kolkata News

সিঁড়িতে পড়ে মহিলা সিভিক ভলান্টিয়ারের রক্তাক্ত দেহ, চেয়ারে বাঁধা স্বামী

সিঁড়িতে চাপ চাপ রক্ত। সেই রক্তের ওপরেই এলিয়ে পড়ে আছে শম্পা দাসের হাত-পা বাঁধা দেহ। সিঁড়ির ওপরের ঘরে চেয়ারের সঙ্গে দড়ি দিয়ে বাঁধা তাঁর স্বামী। গায়ে তাঁর অল্পবিস্তর আঘাতের চিহ্ন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.