Kolkata

পুজোয় বৃত্ত পূরণ, বৃষ্টিতে ভিজল দশমীও, কি বলছে আবহাওয়া দফতর

পুজোর ৫ দিনই বৃষ্টি পড়া সম্পূর্ণ হল। ষষ্ঠী থেকে যে বৃষ্টি হানা দিচ্ছিল তা অব্যাহত রইল দশমী পর্যন্ত। যদিও তার জন্য ঠাকুর দেখায় ভাটা পড়েনি।

পুজোয় বৃষ্টির পূর্বাভাস তো আগেই দিয়েছিল আবহাওয়া দফতর। তা সঠিক প্রমাণ করে ষষ্ঠী থেকে বৃষ্টি পেয়েছে কলকাতা সহ আশপাশের জেলাগুলি। সপ্তমী থেকে উপকূলীয় জেলাগুলিতে বৃষ্টি বেড়েছে। তবে অতটা কোপ কলকাতা বা তার আশপাশে পড়েনি। কিন্তু বৃষ্টি যে হয়নি এমনটাও নয়।

ষষ্ঠীর ভাসিয়ে দেওয়া বৃষ্টি অবশ্য অন্য দিনগুলোয় হয়নি। তবে বৃষ্টি হয়েছে। বৃষ্টিতে ভিজেছে শহর থেকে গ্রাম। সপ্তমী, অষ্টমী, নবমীর পর বিজয়াদশমীতেও বৃষ্টি পিছু ছাড়ল না।

বিজয়াদশমীর সকালে শহর থেকে গ্রাম সর্বত্রই থাকে বিষাদের সুর। মনখারাপ থাকে সকলের। মাকে বিদায় জানানোর পালা এদিন। মা ফিরবেন কৈলাসে। ফের একটা বছরের অপেক্ষা।

সেই বিষাদকে যেন আরও বাড়িয়ে দিয়েছে আকাশে কালো মেঘ জমে বৃষ্টি। ভারী বৃষ্টি না হলেও কলকাতা সহ আশপাশের জেলাগুলিতে কিন্তু কোথাও হালকা তো কোথাও মাঝারি বৃষ্টি হয়েছে। তার মধ্যেই আবার দেখা মিলেছে রোদের।

আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে, দশমীর দিন থেকেই ক্রমশ দক্ষিণবঙ্গের পরিস্থিতির উন্নতি হবে। অন্যদিকে পরিস্থিতির অবনতি হবে উত্তরবঙ্গে। উত্তরবঙ্গে আরও বৃষ্টি বাড়বে। সবচেয়ে বেশি বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে দার্জিলিং ও কালিম্পংয়ে। এছাড়াও উত্তরবঙ্গের অন্য জেলাগুলিতে বৃষ্টি হবে।

তবে এবার একদিকে যেমন পুজোর ৫ দিনই বৃষ্টির হাত থেকে রেহাই মেলেনি, তেমনই বৃষ্টি কপালে ভাঁজ ফেললেও মানুষের উৎসাহে এতটুকু ভাটা ফেলতে পারেনি।

বৃষ্টি না হলেও যেভাবে তাঁরা ঠাকুর দেখতেন, বৃষ্টি হয়েও সেই একই উন্মাদনা নিয়ে তাঁরা প্যান্ডেলে প্যান্ডেলে ঘুরেছেন। আনন্দ করেছেন। ঠাকুর দেখেছেন।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button