Kolkata

অপেক্ষার প্রহর গোনা শেষ, দুর্গাপুজোর আগেই খুলে গেল নতুন টালা সেতু

আড়াই বছরের অপেক্ষার অবসান হল। খুলে গেল টালা সেতু। পড়ন্ত বিকেলে মুখ্যমন্ত্রী এদিন নবনির্মিত টালা সেতুর রিমোটে উদ্বোধন করেন। নতুন ব্রিজের ওপর দিয়ে এদিনই ছুটল গাড়ি।

আড়াই বছর অনেক ঘুরপথ সহ্য করেছেন উত্তর ও উত্তর শহরতলীর মানুষ। টালা ব্রিজ না থাকায় অন্য পথে যাতায়াত করতে হয়েছে তাঁদের।

২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরের শেষ। স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল টালা ব্রিজে ভারী যান চলাচল। তারপর কিছুদিন ছোট গাড়ি যাতায়াত করলেও সেটিও বন্ধ করে দেওয়া হয়।


পড়ুন আকর্ষণীয় খবর, ডাউনলোড নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হয় ব্রিজ ভাঙার কাজ। এপ্রিলে শেষ হয় ভাঙার কাজ। তারপর শুরু হয় নতুন ব্রিজ তৈরির কাজ। অত্যাধুনিক প্রযুক্তি কাজে লাগিয়ে এই ব্রিজ তৈরি হতে সময় নেয় আড়াই বছর।

অবশেষে বৃহস্পতিবার পড়ন্ত বিকেলে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় উদ্বোধন করলেন নব নির্মিত টালা ব্রিজের। ব্রিজ খুলে দেওয়ার পর তার ওপর দিয়ে যান চলাচল করে।

ব্রিজটি প্রায় ৮০০ মিটার লম্বা। আসা যাওয়ার জন্য ২টি আলাদা ফ্ল্যাঙ্ক করে দেওয়া হয়েছে। ২টি ফ্ল্যাঙ্কই ২ লেন বিশিষ্ট। পুরনো টালা ব্রিজে যেমন গায়ে গায়ে গাড়ির আসা যাওয়া চলত, এবার তা হবে না। আসা যাওয়া আলাদা।

ব্রিজটি তৈরি করতে খরচ পড়েছে ৫০৪ কোটি টাকা। ব্রিজটির ভার বহন ক্ষমতা পুরনো ব্রিজটির চেয়ে বেশি। খড়গপুর আইআইটির বিশেষজ্ঞদের তত্ত্বাবধানে ব্রিজটি নির্মাণের দায়িত্বে ছিল লারসেন অ্যান্ড টুবরো সংস্থা।

সেতুটি পয়লা বৈশাখে খোলার কথা থাকলেও কাজ শেষ না হওয়ায় তা সম্ভব হয়নি। অবশেষে দুর্গাপুজোর আগে নতুন টালা ব্রিজের মত একটি উপহার পেলেন শহরবাসী।

Show Full Article
Back to top button