Kolkata

এবার ইডির নজরে পার্থ চট্টোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ আরও এক মহিলা

অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের পর এবার ইডির নজরে আরও এক মহিলা। তিনিও পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ বলেই পরিচিত। এবার তাঁকেও দূরবীনে নিয়ে এল ইডি।

ওয়েস্ট বেঙ্গল স্কুল সার্ভিস কমিশনের নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় মন্ত্রী তথা তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট বা ইডি। সেইসঙ্গে গ্রেফতার করা হয়েছে পার্থবাবুর ঘনিষ্ঠ হিসাবে পরিচিত অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কেও।

অর্পিতার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছে নগদ ২১ কোটি টাকা, সোনার গয়না, ২০টি মোবাইল। এই গ্রেফতারিতেই অবশ্য থামছে না ইডি। এবার তাদের নজরে পার্থবাবুর ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত আরও এক মহিলা।

২০১৪ সালে পার্থ চট্টোপাধ্যায় তখন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী। সে সময় মোনালিসা দাস নামে এক শিক্ষিকা রাতারাতি আসানসোলের কাজি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের প্রধান হিসাবে সরাসরি নিয়োগ পান। রাজ্যসরকার পরিচালিত বিশ্ববিদ্যালয়টিতে এভাবে হঠাৎ করে মোনালিসা দাসের নিয়োগ নিয়ে জল ঘোলাও হয়। প্রশ্ন ওঠে নানা মহলে।

সেসময় মোনালিসা দাস শিক্ষামন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ হিসাবেও পরিচিত হয়ে যান। শিক্ষামন্ত্রীর বদান্যতায় তিনি ওই বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলার বিভাগীয় প্রধান হয়ে আসলে প্রাইজ পোস্টিং পেয়েছেন বলেও সমালোচনার ঝড় ওঠে।


ইডি সূত্রের খবর, মোনালিসা দাসের বীরভূমে শান্তিনিকেতনের আশপাশে ১০টি ফ্ল্যাট রয়েছে। সেগুলির যা দাম তা তাঁর মাইনের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয় বলেই মনে করছেন ইডি আধিকারিকরা।

যদিও তাঁর সঙ্গে পার্থবাবুর ঘনিষ্ঠতার কথা নস্যাৎ করে দিয়েছেন অধ্যাপিকা মোনালিসা দাস। তাঁর দাবি, পার্থবাবু শিক্ষামন্ত্রী ছিলেন। একজন শিক্ষক হিসাবে তাঁকে তিনি চেনেন। সেদিক থেকে পার্থবাবু তাঁর অভিভাবক সম। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button