Lifestyle

এই রেস্তোরাঁয় টাকা খরচ করে চড় খেতে যান গ্রাহকরা

এমন রেস্তোরাঁর কথা কেউ শুনেছেন কি যেখানে খেতে গেলে জোটে চড়। তাও মানুষ হাসিমুখে সেখানে যান চড় খেতে। সঙ্গে খাবারও খেতে।

রেস্তোরাঁয় তো কত মানুষই খেতে যান। এই প্রতিযোগিতার যুগে রেস্তোরাঁগুলি চেষ্টা করে এটা নিশ্চিত করার যে তারা দারুণ পরিষেবা দিচ্ছে। গ্রাহকদের আকর্ষিত করার চেষ্টায় ত্রুটি রাখে না তারা। কিন্তু এমন এক রেস্তোরাঁ রয়েছে যেখানে চড় জোটে। চড় মারেন ওই রেস্তোরাঁয় কর্মরত মহিলা কর্মচারি।

অবশ্যই যিনি খেতে আসবেন তাঁকেই চড় কষানো হবে এমনটা নয়। এখানে একটি বিশেষ মেনু আছে। যার সঙ্গে চড় যুক্ত।

এই মেনু নিলে রেস্তোরাঁর কাছে পরিস্কার হয় যে ওই পুরুষ বা মহিলা চড় খেতে চান। এটা জানার পর খাবার পরিবেশনের আগেই তাঁকে চড় কষানোর ব্যবস্থা হয়।

জাপানি পোশাক কিমোনো পরে রেস্তোরাঁর মহিলা কর্মচারি এসে চড় কষিয়ে দিয়ে যান ওই গ্রাহককে। একটা নয়। চড়ের পর চড় কষাতে থাকেন তিনি। সেই ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়েছে।

এখানে যে কেবল এই চড় খাওয়ার অভিজ্ঞতা করতে দেশের মানুষ হাজির হন এমনটা নয়, বিদেশ থেকে পর্যটকরাও এমন চড় খেতে আগ্রহ নিয়ে হাজির হন এই রেস্তোরাঁয়।

তবে ওই রেস্তোরাঁ সম্প্রতি জানিয়ে দিয়েছে তারা এই চড় কষানোর ব্যাপারটি বন্ধ রেখেছে। এটা পাওয়ার আশা নিয়ে কেউ যেন রেস্তোরাঁয় খেতে না আসেন, সে অনুরোধও করেছে জাপানের সাচিহোকোয়া নামে রেস্তোরাঁ কর্তৃপক্ষ।

তাই আপাতত বন্ধ এই চড় খাওয়ার সুযোগ। তবে এমন চড় সহ্য করেও এই চড়ের জন্যই বিখ্যাত এই রেস্তোরাঁ। গ্রাহকদের তাতে কোনও রাগ বা অভিমান নেই। ব্যাংকক ল্যাড নামে একটি এক্স হ্যান্ডলে এই চড়ের ভিডিও যথেষ্ট জনপ্রিয় হয়েছে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button