World

মৃত বেড়ে ৩৭, ১৩ জন ভেসে গেলেন বন্যার জলে

ক্রমশ বাড়ছে মৃত্যু। ৩৭ জনে ঠেকেছে মৃতের সংখ্যা। ইতিমধ্যেই ১৩ জন ভেসে গেলেন বন্যার জলের তোড়ে।

টোকিও : প্রবল বৃষ্টি চলছে বেশ কয়েকদিন ধরে। ফলে পাহাড়ি এলাকা জুড়ে পাহাড়ের গা আলগা হয়েছে। আলগা মাটি ধস হয়ে নেমে এসেছে বারবার। ধসে বিপর্যস্ত গোটা এলাকা। সেইসঙ্গে চারিদিক দিয়ে তোড়ে জল বয়ে যাচ্ছে। রাস্তাঘাট জলের তলায় হারিয়ে গেছে। জাপানের দ্বীপ কিউসু-তে এখন এমনই পরিস্থিতি। ইতিমধ্যেই ধসে চাপা পড়ে এবং বন্যার জলের তোড়ে ভেসে গিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। এখনও ৩৭ জন প্রাণ হারিয়েছেন। বন্যার জলের তোড়ে ১৩ জন ভেসে গেছেন। যাঁদের আর খোঁজ মেলেনি।

আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে জাপানের কিউসু দ্বীপে এখনও পর্যন্ত কখনও এমন বৃষ্টি হয়নি। এমন বন্যা পরিস্থিতিও তৈরি হয়নি। ইতিহাসে এমন ভয়ংকর পরিস্থিতির খোঁজ নেই। তাহলে এমন কী হল যে কিউসু এমন ভয়ংকর অবস্থার শিকার হল? এটা কারও কাছেই পরিস্কার নয়। ১০ হাজার সেনাকে উদ্ধারকাজে লাগানো হয়েছে। কারণ কিউসু দ্বীপ জুড়েই পাহাড়ি দুর্গম এলাকা। তারওপর সেখানে অঝোরে বৃষ্টি হচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে একমাত্র সেনাই পারে উদ্ধারকাজ চালাতে। জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে স্থানীয় মানুষকে চূড়ান্ত সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন।

কিউসু দ্বীপের সবকটি নদী বিপদসীমার ওপর দিয়ে বইছে। বিভিন্ন এলাকা গ্রাস করছে নদীর প্রবল তোড়ে বইতে থাকা জলরাশি। বন্যা দুর্গতদের ত্রাণ শিবিরগুলিতে উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে ঠিকই, তবে সেখানে রাখা হচ্ছে সীমিত সংখ্যক মানুষকেই। কারণ সেখানে আবার করোনা সতর্কতা বজায় রাখতে হচ্ছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button