Lifestyle

কেমন স্বামীরা রোজগার বেশি করেন, জানাল গবেষণা

স্বামীরা কেমন হলে মাসের শেষে গিন্নির হাতে আসে অধিক অর্থ। স্বামী বেশি রোজগার করেন। এই চাঞ্চল্যকর তথ্য এবার সামনে আনল একটি গবেষণা।

যে কোনও স্ত্রীর কাছে স্বামীর ভালবাসার সঙ্গে সঙ্গে স্বামীর রোজগারটাও গুরুত্বপূর্ণ। কারণ সেই পুরনো প্রবাদ, যখন দারিদ্র দরজা দিয়ে প্রবেশ করে তখন ভালবাসা জানালা দিয়ে পালায়!

স্বামীরা কেমন হলে তাঁদের রোজগার বেশি হয়? সেটা জানতে কোন স্ত্রী আর অনিচ্ছুক হবেন! এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে হয়েছিল একটি গবেষণা। সেই গবেষণায় যে তথ্য সামনে এসেছে তা যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ।

গবেষণা বলছে বিয়ের পর অনেক পুরুষ আছেন যাঁরা পেশার পাশাপাশি পারিবারিক কাজও অনেক করেন। স্ত্রীর পাশে থেকে তাঁকে সাহায্য করেন। সে ঘরের কাজ হোক বা কেনাকাটা।

আবার কিছু পুরুষ থাকেন যাঁরা সাংসারিক কাজ নিয়ে নির্লিপ্ত থাকেন। নিজের পেশা নিয়েই বেশি ব্যস্ত থাকেন। বাড়িতে কি হল না হল সেসব নিয়ে বিশেষ মাথা ঘামান না। বাড়ির কাজে সময় দেওয়া পছন্দও করেননা।

আপাত দৃষ্টিতে প্রথম ধরনের স্বামী অধিকাংশ স্ত্রীর কাছে অনেক বেশি কাম্য। কিন্তু গবেষণা বলছে যদি মাসের শেষে রোজগারের দিকটা দেখতে হয় তাহলে কিন্তু দ্বিতীয় ধরনের পুরুষ অনেক বেশি সফল।

অর্থাৎ যাঁরা বাড়ির কাজে বিশেষ সময় দিতে পছন্দ করেননা, তাঁরা বেশি রোজগার করেন। তুলনায় বাড়ির কাজে স্ত্রীকে সাহায্য করা পুরুষরা রোজগার কম করেন।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইন্ডিয়ানার নটরডাম বিশ্ববিদ্যালয়ে হওয়া গবেষণায় এই তথ্য উঠে এসেছে।

গবেষণায় দেখা গেছে যেসব স্বামী বাড়ির কাজে সাহায্য করে তাঁরা চরিত্রের দিক থেকে সদয়, সহযোগী ও সহানুভূতিশীল হয়ে থাকেন। এসব গুণ থাকেনা যাঁরা বাড়ির কাজে সাহায্য করেননা তাঁদের মধ্যে।

তাঁরা বরং অনেক বেশি প্রতিযোগিতামূলক ও আত্মকেন্দ্রিক মানসিকতার মানুষ হন। এজন্য তাঁরা নিজেদের কাজে অনেক বেশি সময় দেন ও অর্থ উপার্জন বেশি করে থাকেন। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More
Back to top button