Sports

শাহরুখ খানকে দলে টানলেন প্রীতি, শচীনের ছেলে পেলেন সুযোগ

শাহরুখ খানকে এবার আইপিএল-এ দলে পেলেন প্রীতি জিন্টা। তাঁর পঞ্জাব কিংসের সঙ্গে এবার যুক্ত হলেন শাহরুখ। শাহরুখকে পাওয়ার পরই উচ্ছ্বসিত প্রীতি জিন্টা।

নয়াদিল্লি : আইপিএল-এ অভিনেত্রী প্রীতি জিন্টার দল হিসাবেই পরিচিত কিংস ইলেভেন পঞ্জাব। যদিও এবার দলের নাম পরিবর্তিত হয়েছে। নতুন নাম হয়েছে পঞ্জাব কিংস।

শুক্রবার আসন্ন ১৪ তম আইপিএল-এর জন্য ছিল নিলামের বন্দোবস্ত। সকাল থেকেই দলের কর্মকর্তারা নিজের দলে নতুন খেলোয়াড় নেওয়ার লড়াইয়ে নেমেছেন।

যেখানে কলকাতা নাইট রাইডার্স-এর টেবিলে দেখা মেলে শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান ও জুহি চাওলার মেয়ের। অন্যদিকে প্রীতি জিন্টা উপস্থিত ছিলেন তাঁর দলের হয়ে। সেখানেই তাঁকে এক সময় উচ্ছ্বসিত হতে দেখা যায়। কারণ জানতে গিয়ে হতবাক হন অনেকেই।

প্রীতি কার্যত উচ্ছ্বসিত হয়ে চেঁচিয়েই ওঠেন যে তিনি দলে শাহরুখ খানকে পেয়ে গেছেন। তাহলে কী কলকাতা নাইট রাইডার্স ছেড়ে দিলেন শাহরুখ খান? অনেকেই চমকে ওঠেন।

প্রীতি এটাও জানান ৫ কোটি ২৫ লক্ষে তিনি শাহরুখকে পেয়ে গেলেন। এবার কিছুটা পরিস্কার হয় বিষয়টি। জানা যায় তামিলনাড়ুর ব্যাটসম্যান শাহরুখ খানকে এবার নিলামে নিল প্রীতির দল। ফলে শাহরুখ খান এবার খেলবেন পঞ্জাবের হয়ে। আর সেটাই চিৎকার করে জানান প্রীতি। যা শুনে সাময়িকভাবে হতবাক হয়ে যান অনেকেই।

এবারের আইপিএল অক্সানে সবচেয়ে বেশি টাকা পকেটে নিয়ে নেমেছে পঞ্জাবই। ফলে তারা সকাল থেকে একের পর এক খেলোয়াড়কে দলে নিয়েছে। যাঁদের মধ্যে রয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার রিচার্ডসন। তাঁকে ১৪ কোটি দিয়ে দলে টেনেছে পঞ্জাব।

অস্ট্রেলিয়ারই বোলার মেরেডিথকে ৮ কোটি টাকা দিয়ে কিনে নিয়েছে পঞ্জাব। এছাড়া অস্ট্রেলিয়ার মরিস হেনরিকসকে ৪ কোটি ২০ লক্ষ টাকায় এবং মালানকে দেড় কোটি টাকায় কিনেছে পঞ্জাব।

মুম্বই ইন্ডিয়ান্স কিনেছে শচীন তেন্ডুলকরের ছেলে অর্জুন তেন্ডুলকরকে। কলকাতা নাইট রাইডার্স ফের নিল বাংলাদেশের সাকিব আল হাসানকে। নির্বাসন সমাপ্ত হতেই তিনি ফিরলেন ৩ কোটি ২০ লক্ষ টাকায়।

এছাড়া হরভজন সিংকে ২ কোটি টাকায় কিনল কলকাতা। করণ নায়ারকেও কলকাতা দলে টানল। কলকাতা যেহেতু তার দলের অধিকাংশ খেলোয়াড়কেই ধরে রেখেছে ফলে তারা এবার নিলামে সবচেয়ে কম টাকা পকেটে নিয়ে নেমেছিল। তাই এবার শাহরুখ-জুহির দল তেমন বেশি খেলোয়াড় কেনার পরিস্থিতিতে নেই। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button