National

প্রজাতন্ত্র দিবসের মুখে গোপন সুড়ঙ্গের খোঁজ পেল বিএসএফ

প্রজাতন্ত্র দিবসের মুখে সন্ত্রাসবাদীরা যাতে কোনও আঘাত না হানতে পারে সেজন্য আর জোরদার নজরদারিতে এল বড় সাফল্য। মিলল গোপন সুড়ঙ্গের খোঁজ।

জম্মু : প্রজাতন্ত্র দিবসে বা তার প্রাক্কালে ভারতে সন্ত্রাসবাদী হামলার একটা সম্ভাবনা মাথা চাড়া দেয়। যা পাক মদতপুষ্ট জঙ্গিরাই প্রধানত করতে পারে বলে মনে করা হয়।

পাকিস্তান থেকে ভারতে এ সময়ে সন্ত্রাসবাদী অনুপ্রবেশের চেষ্টা অস্বাভাবিক কিছু নয়। কড়া সেনা নজরদারি এড়িয়ে ভারতে পা দেওয়া যে সহজ নয় তা ভালভাবেই জানে সন্ত্রাসবাদীরা। জানে পাকিস্তানও।

তাই পাকিস্তান থেকে ভারতের দিকে সন্ত্রাসবাদীদের অনুপ্রবেশকে সুগম করতে কোনও চেষ্টার খামতি থাকেনা। গোপন সুড়ঙ্গ দিয়ে সকলের নজর এড়িয়ে ভারতে প্রবেশের চেষ্টা আগেও হয়েছে। এবার তেমনই একটি গোপন সুড়ঙ্গের খোঁজ পেল বিএসএফ।

জম্মু পানসার একটি সীমান্তবর্তী এলাকা। এখানেই বিএসএফ একটি গোপন সুড়ঙ্গের খোঁজ পেয়েছে। ১৫০ ফুট লম্বা ও ৩০ ফুট গভীর এই সুড়ঙ্গের খোঁজ পাওয়াকে বড় সাফল্য হিসাবেই দেখা হচ্ছে। এর হাত ধরে পাকিস্তান থেকে ভারতে সন্ত্রাসবাদী প্রবেশের রাস্তা করে দেওয়ার চেষ্টা বিফলে গেল।


এই নিয়ে গত ৬ মাসে ৪টি এমন সুড়ঙ্গের খোঁজ পেল বিএসএফ। সবকটিই জম্মুতে। জম্মুর সাম্বা, হিরানগর, কাথুয়ার পর এবার পানসার এলাকায় এই সুড়ঙ্গের খোঁজ পাওয়া গেল। আর তা পাওয়া গেল ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসের প্রাক্কালে।

পাকিস্তান থেকে ভারতে সন্ত্রাসবাদী অনুপ্রবেশের চেষ্টা অব্যাহত থাকে। ফলে বিএসএফ সদা সতর্ক থাকে। ভারতে অশান্তি পাকাতে পাকিস্তানের দিক থেকে এই চেষ্টার ধরণ বদলায়।

কখনও জঙ্গলের মধ্যে দিয়ে লুকিয়ে, কখনও প্রবল ঠান্ডা ও ঘন কুয়াশাকে কাজে লাগিয়ে ভারতে প্রবেশের চেষ্টা, তো কখনও সুড়ঙ্গ কেটে পাকিস্তান থেকে ভারতে সন্ত্রাসবাদীদের পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা। সব ধরনের চেষ্টা চলে যেমন, তেমনই তা বারবার ব্যর্থ করে দিয়েছে বিএসএফ।

এখন ভারত-পাক সীমান্ত জুড়েই এমন সুড়ঙ্গের খোঁজ চলছে জোরকদমে। যাতে সাফল্যও এসেছে পরপর। এবার সেই চেষ্টায় ফের একটা সাফল্য পেল বিএসএফ। পাওয়া গেলও আরও একটি সুড়ঙ্গের খোঁজ।

প্রজাতন্ত্র দিবসের মুখে এই সুড়ঙ্গের হদিশ পাওয়াকে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article
Back to top button